মেইন ম্যেনু

এক চ্যাম্পিয়নের অশ্রুসিক্ত বিদায় (ভিডিও)

একটি, দুটি বছর নয়। দীর্ঘ ২৫টি বছর। রিয়াল মাদ্রিদের মাঠ সান্তিয়াগো বার্নাব্যুর সবুজ ঘাস থেকে শুরু করে ক্লাবটির চুন-শুরকি এমন কী ধুলোবালিও তাকে আপন করে নিয়েছে। আত্মার বাঁধনে বেঁধেছে। এই বন্ধন ছিন্ন হওয়াটা কতোটা কষ্টের? কতোটা যন্ত্রনার? হয়তো ইকার ক্যাসিয়াস সেটা ভালোভাবেই টের পাচ্ছেন। তাইতো প্রিয় প্রাঙ্গন, প্রাণের প্রিয় মাঠ ও ক্লাবকে বিদায় দিতে গিয়ে বার বার ডুকরে কেঁদে উঠেছেন। তারপরও যে বিদায় বলতেই হবে। সময় ও বাস্তবতা যে বড়ই কঠিন।

এক সময় এই ক্যাসিয়াসকে ছাড়া রিয়াল মাদ্রিদের চলত-ই না। আর আজ কিনা সেই ক্যাসিয়াস উপেক্ষিত। অনাদৃত। তাইতো নতুনের সন্ধানে, নতুন গন্তব্যে পাড়ি জমাচ্ছেন ক্যাসিয়াস। যাচ্ছেন পর্তুগালের ক্লাব পোর্ততে।

রোববার তিনি আনুষ্ঠানিকভাবে রিয়াল মাদ্রিদ থেকে বিদায় নেন। সংবাদ সম্মেলনে এসে বার বার খেই হারাচ্ছিলেন তিনি। অশ্রু সংবরণ করে বার বার স্বভাবিক হতে চেয়েছিলেন। কিন্তু বার বারই ব্যর্থ হয়েছেন। অবশেষে কেঁদেছেন। নিয়েছেন অশ্রুসিক্ত বিদায়।

ক্যাসিয়াস বলেন, ‘এখানে উপস্থিত হওয়ায় প্রথমেই সবাইকে ধন্যবাদ জানাই। এই বিশেষ মুহূর্তে আপনারা আমার সাথে আছেন ভেবে ভালো লাগছে। আমি আজ এই স্টেডিয়ামে এসেছি আপনাদের বিদায় বলতে। বিশেষ করে ভক্তদের। গতকাল থেকে আমি আর রিয়াল মাদ্রিদের সঙ্গে নেই।’

এরপর আর অশ্রু সংবরণ করতে পারেননি স্প্যানিশ তারকা গোলরক্ষক। অশ্রু মুছে ধরা আসা গলায় তিনি বলেন, ‘আমি এখন মাদ্রিদিস্তাদের সঙ্গে কথা বলব। ২৫টি বছর এই জার্সি পরে খেলেছি। রিয়ালের রংয়ে রঙিন হয়েছি। অনেক কিছু অর্জন করেছি। পেয়েছি।

আজ এই প্রান্তে এসে বিদায় বলাটা সত্যিই কঠিন। এটা যেন ঠিক গতকালের ঘটনা যখন ৯ বছর বয়সী একটি ছেলে রিয়াল মাদ্রিদের জার্সি গায়ে জড়িয়েছিল। আমার স্বপ্ন বাস্তবায়িত হয়েছে। গেল ২৫টি বছর আমরা একসঙ্গে হেসেছি। একসঙ্গে কেঁদেছি। জিতেছি। হেরেছি। এই ক্লাব আমাকে ব্যক্তি হিসেবে যথেষ্ট প্রশিক্ষিত করে তুলেছে। মূল্যবোধ আর সম্মানে বড় করেছে। আমি যেখানেই গিয়েছি সেখানেই রিয়ালের মান রক্ষা করার চেষ্টা করেছি।’

বক্তব্যের একবারে শেষ প্রান্তে এসে ক্যাসিয়াস বলেন, ‘আমি বিদায় বলব না। কারণ, এটা বিদায় বলা কিংবা আবার দেখা হওয়ার চেয়ে বেশি কিছু। আমি জানি আবার আমাদের দেখা হবে।’

এরপর নিঃশব্দে উঠে একাকী চলে গেলেন চ্যাম্পিয়ন ইকার ক্যাসিয়াস। যেমন একাকী এসেছিলেন এই ক্লাবটিতে।

ভিডিও লিঙ্ক :