মেইন ম্যেনু

এক টুইটে রোনালদোর আয় ৩ কোটি টাকা!

ফেসবুক, টুইটার কিংবা ইন্সটাগ্রাম। সবই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম। যেখানে ভাবের আদান প্রদান করেন সবাই। কিন্তু এই মাধ্যম থেকে বিস্তর আয়ের সুযোগ রয়েছে। বিশেষ করে টুইটারে একটি টুইট বার্তায় আসতে পারে দুই-তিন কোটি টাকা। তবে তা সাধারণ মানুষের জন্য নয়। এই সুযোগ থাকছে রিয়াল মাদ্রিদের পর্তুগিজ তারকা উইঙ্গার ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোর।

সম্প্রতি সামাজিক মাধ্যম নিয়ে একটি গবেষণা করেছিল অনলাইন প্ল্যাটফর্ম ওপেনডোর্স। সেখানে তারা উল্লেখ করেছে, ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোর টুইটারে অনুসারীর সংখ্যা ৩ কোটি ৭৭ লাখ। তিনি যদি একটি টুইটারে পণ্যের বিজ্ঞাপন করেন তবে নাকি সেই টুইট থেকেই আয় করে নিতে পারেন ২ লাখ ৩০ হাজার পাউন্ড ( ২ কোটি ৭২ লাখ টাকা)!

শুধু তাই নয়, ইতোমধ্যে এমন আয়ের নজিরও নাকি গড়েছেন রোনালদো। যেমন কদিন আগে নাইকির একটি কেমোফ্ল্যাজ জ্যাকেট পরা ছবি টুইট করে রোনালদো লিখেছেন, ‘নাইকির তৈরি আমার নতুন টেকপ্যাকটা খুব পছন্দ হয়েছে। এটা দুর্দান্ত!’ স্প্যানিশ প্রতিষ্ঠান দুটির গবেষণা বলছে, এ ছবি আর মন্তব্য টুইট করার বিনিময়ে নাইকি থেকে প্রায় ১ লাখ ৭০ হাজার পাউন্ড উপার্জন করেছেন রোনালদো।

ওপেনডোর্স এই গবেষণায় দেখিয়েছে, কেবল এক টুইটারে পোস্ট করেই কোন কোন তারকা কত আয় করে নিতে পারেন। সে অনুসারে তার শীর্ষ দশের একটি তালিকাও করেছে। অনুমিতভাবে সবার উপরে আছেন রোনালদো, এরপরই ব্রাজিলের নেইমার। তিনি নাকি একটি টুইট করেই আয় করতে পারেন ৯৮ হাজার পাউন্ড (১ কোটি ১৬ লাখ টাকা)। তৃতীয় স্থানে থাকা ইংল্যান্ডের ওয়েইন রুনি প্রতি টুইটে আয় করতে পারেন ৬০ হাজার পাউন্ড (৭২ লাখ টাকা)।

এই তালিকায় পরের স্থানগুলোতে রয়েছেন জার্মানির মেসুত ওজিল, কলম্বিয়ার রাদামেল ফ্যালকাও, আর্জেন্টিনার সার্জিও আগুয়েরো, স্পেনের সেস ফ্যাবিগ্রাস, ওয়েলসের গ্যারেথ বেল, উরুগুয়ের লুইস সুয়ারেজ, বেলজিয়ামের ইডেন হ্যাজার্ড।

তবে সবার চোখ ছানাবড়া হয়ে যেতে পারে। কারণ এই তালিকায় লিওনেল মেসিরই নাম নেই। থাকবে কি করে, টুইটারে যে মেসির কোন অ্যাকাউন্টই নেই। থাকলে মাঠের মতো এখানেও হয়তো তার লড়াই হতো রোনালদোর সঙ্গেই।