মেইন ম্যেনু

এক বছরেও ডিম টাটকা রাখতে করণীয়

মাসের প্রথমেই বাজার করা, শেষের দিকে ফুরিয়ে আসা। অন্যান্য জিনিসের সঙ্গে শেষ হয় প্রতিদিনের প্রয়োজনীয় ডিমও। ফ্রিজে ডিম রেখে মাসভর খেতে গেলেও অনেক সময় নষ্ট হয়ে যায়। আর ফ্রিজের বাইরে রাখলে তো কথায় নেই। গরমের সময় ডিম নষ্ট হয় আরও দ্রুত। তাইতো সুলভে ভালো ডিম পেলেও বেশি কিনে জমিয়ে রাখা যায় না। অথচ একটু বুদ্ধি খরচ করেই বছর জুড়ে টাটকা ডিম খেতে পারেন! এমন কথা শুনে চোখ চড়ক গাছ- তাই না? না, কথাটি একদম সত্য। আসুন দেখে নেয়া যাক কীভাবে সংরক্ষণে বছরজুড়ে টাটকা ডিম পাওয়া যায়।

প্রথমে ডিমগুলোকে একটি পরিস্কার পাত্রে ভেঙে নিন। সামান্য লবণ দিয়ে একটু ফেটিয়ে নিতে হবে। খুব বেশি ফেটানোর প্রয়োজন নেই। এবার এই ডিমগুলোকে ছোট বাটিতে ভরে সংরক্ষণ করুন। একেকটি বাটিতে দুইটা ডিমের পরিমাণ রাখলে আপনার আন্দাজ ঠিক থাকবে।

সবচেয়ে ভালো হয় বরফ জমানোর ট্রে-তে আইস কিউব রূপে সংরক্ষণ করলে। দুটি আইস কিউব সমান একটি ডিম হবে। ফলে আপনার হিসাব রাখতেও সুবিধা হবে। দুটি কিউব বের করে নিলেই একটি ডিমের প্রয়োজন মিটে যাবে। বরফ জমাবার ট্রে-তে গোলা ডিম রেখে দিন, জমে গেলে কিউবগুলো বের করে নিয়ে প্লাস্টিকের ব্যাগে সংরক্ষণ করুন। এতে জায়গাও বাঁচবে অনেক।

যদি ডিম না ফেটিয়ে রাখতে চান, সেক্ষেত্রে ছোট বাটিতে ডিম ভেঙে দিন। খেয়াল রাখবেন কুসুম যেন আস্ত থাকে। প্রতিটি ডিমের ওপরে দিয়ে দিন এক চিমটি লবণ। এবার একে ডিপ ফ্রিজে রাখুন। জমে গেলে বের করে প্লাস্টিকের ব্যাগে রাখুন। এই ডিম দিয়েও আপনি যে কোনো খাবার তৈরি করতে পারবেন।

যদি ডিম পোঁচ করতে চান, সেটাও সম্ভব। শুধু ডিম পোঁচ করার আগে এই ডিমকে বাইরে বের করে রাখবেন। সাধারণ তাপমাত্রায় চলে এলে পোঁচ করে নিলেই হল।