মেইন ম্যেনু

এক বোতল বিশুদ্ধ বাতাসের দাম ২০০০ টাকা!

চোখের সামনে এক নতুন অধ্যায়ে ঢুকে পড়েছে বিশ্বের বায়ুপরিস্থিতি। ইচ্ছা করলেই আর বুক ভরে স্বস্তির নিঃশ্বাস নেওয়া যাচ্ছে না। চড়া মূল্য দিয়ে কিনে নিতে হচ্ছে বিশুদ্ধ বাতাস। আমরা কখনো ভেবেছি কি, প্রকৃতির দান এবং জীবনের জন্য অপরিহার্য বায়ু বা নিঃশ্বাস একদিন কিনে গ্রহণ করতে হবে? সে যা হোক, বাস্তবতা দাঁড়াচ্ছে ঠিক এমনই।

সম্প্রতি চীনের বেইজিংসহ কয়েকটি বড় বড় শহরে বায়ুদূষণের মাত্রা এতটা ভয়ংকর হয়ে উঠেছে যে, নিঃশ্বাস নেওয়ার জোঁ নেই। বায়ুম-ল দূষিত হয়ে গেছে, নিঃশ্বাসের সঙ্গে ঢুকছে বিষ। সেই সঙ্গে মানবদেহের জন্য ক্ষতিকর সিসা। এই পরিস্থিতিতে বেইজিংয়ের লোকদের বাঁচার জন্য এখন বোতলজাত বিশুদ্ধ বায়ু কিনতে হচ্ছে। এটি কি ভয়ংকর খবর নয়!

কানাডার একটি কোম্পানি বেইজিংয়ে বোতলভর্তি বিশুদ্ধ বাতাস বিক্রি করছে। এজন্য চড়া মূল্য দিতে হচ্ছে ক্রেতাদের। প্রতি বোতল বাতাসের মূল্য নেওয়া হচ্ছে প্রায় ২ হাজার টাকা (২৮ মার্কিন ডলার)।

সম্প্রতি বেইজিংয়ের বায়ুপরিস্থি এতটা খারাপ হয় যে, চীনা সরকার রেড এলার্ট জারি করতে বাধ্য হয়। এর আগেও কয়েক কয়েকবার ধোয়াশায় ঢেকে যায় বেইজিংয়ের আকাশ। ধুলি, ধোয়া, বিষাক্ত গ্যাস ও কার্বন নিঃসরণের মাত্রা বেড়ে যাওয়ায় ধোয়াচ্ছন্ন হয়ে পড়ে বেইজিং। এই অবস্থায় বেইজিংয়ে শ্বাস-প্রশ্বাসজনিত ফুসফুসের রোগে আক্রান্ত হচ্ছে লোকজন। বেঁচে থাকার তাগিদে এখন তাদের বোতলজাত বাতাস কিনতে হচ্ছে।

বিশুদ্ধ পানির অভাবে বোতলজাত পানি বিক্রি শুরু হয়। এবার প্রকৃতির আরেক দান বায়ুর বিশুদ্ধতার অভাবে কিনতে হচ্ছে বোতলজাত বাতাস। দিন দিন এক ভয়ংকর পরিস্থিতির মধ্যে প্রবেশ করছে ধরিত্রী।