মেইন ম্যেনু

এক মাস নিষিদ্ধ লিভারপুল ডিফেন্ডার

ড্রাগ টেস্ট পরীক্ষায় কৃতকার্য হতে না পারায় লিভারপুলের ডিফেন্ডার মামাদুও সাখুকে এক মাসের জন্য নিষিদ্ধ করেছে উয়েফা। তবে প্রাথমিকভাবে এ ঘোষণা দিলেও উয়েফার নিয়ন্ত্রণ, নৈতিকতা ও শৃংখলা কমিটি বিষয়টি ভালোভাবে বিবেচনা করে সাখুর বিরদ্ধে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নিবে বলে জানিয়েছে।

উয়েফা ইউরোপো লিগে গত ১৭ মার্চ ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের বিপক্ষে জিতেছিল লিভারপুল। সেই ম্যাচের পর সাখুকে নিয়ে সন্দেহ তৈরী হয়। পরে ২৬ বছর বয়সী তারকার ড্রাগ টেস্ট করানো হয়। তাতে পজিটিভ ফল আসায় তাকে আপাতত নিষিদ্ধ করা হয়েছে উয়েফা কৃর্তপক্ষ।

নিজের বিরুদ্ধে ড্রাগ টেস্টের ফলাফলকে চ্যালেঞ্জ না জানানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছেন সাখু। ইউরোপের ফুটবল নিয়ন্ত্রক সংস্থাটি জানিয়েছে যে ‘নমুনা ‘বি’ বিশ্লেষণ করার জন্য সাখু কোনো ধরনের আবেদন করেননি।’

ফ্রান্সের জাতীয় দল ও তার ক্লাব আগেই সিদ্ধান্ত নিয়েছিল যে যতদিন উয়েফা তদন্ত চালিয়ে যাবে, ততদিন সাখু সাইডলাইনে থাকবেন। এর আগে লিভারপুলের অপর তারকা কোলো টুরে ২০১১ সালে ছয় মাস নিষিদ্ধ ছিলেন। স্ত্রীর পরামর্শে তিনিও সাখুর মতো ওজন কমানোর ঔষধ নিয়েছিলেন। সাখুর ক্ষেত্রে যদি উয়েফা একই শাস্তি নির্ধারণ করে তাহলে তিনি ২০১৬ সালে ইউরো খেলতে পারবেন না। আগামী ১০ জুন ফ্রান্সে শুরু হবে ইউরো মিশন।