মেইন ম্যেনু

এটাই কি পৃথিবীর সবচেয়ে বিশ্রী রঙ?

সবুজাভ-বাদামী রঙের কোনো সিগারেটের প্যাকেট কি একজন ধূমপায়ীকে তার পরবর্তী সিগারেটে প্যাকেট হাতে নেয়া থেকে নিবৃত্ত করতে পারে?

যুক্তরাজ্যের আইনপ্রণেতারা অন্তত সেটাই ভাবছেন। আর সেই দৃষ্টিকোণ থেকেই তারা একটি আইন করেছেন যার ফলে দেশটিতে এখন থেকে সিগারেটের প্যাকেটে কোনো উজ্জ্বল রঙ ব্যবহার করা যাবে না। বরং সিগারেটের প্যাকেটগুলো হতে হবে অনেকটা থকথকে কাদার মতো রংয়ের।

কোন রঙটা সবচেয়ে কম আকর্ষণীয়- অস্ট্রেলিয়ার ধূমপায়ীদের কাছে এমন প্রশ্ন রেখেছিল বিপণন গবেষণা প্রতিষ্ঠান জিএফকে ব্লুমুন। তাদের কাছ থেকে পাওয়া তথ্যের ভিত্তিতে সিগারেটের প্যাকেটের জন্য এই রঙ নির্ধারণ করা হয়েছে। প্যানটোন-৪৪৮সি নামের এই রঙের সিগারেটে প্যাকেটের প্রচলন আগে থেকেই রয়েছে অস্ট্রেলিয়াতে। সেখানে সিগারেটের প্যাকেটে সচিত্র স্বাস্থ্যবিষয়ক সতর্কতাও থাকে।

রঙ বিষয়ক পরামর্শক অ্যানজেলা রাইট বলছেন, কোনো কিছু থেকে কাউকে নিবৃত্ত করতে এভাবে রঙ নির্ধারণের ঘটনা এটাই প্রথম নয়। মার্কিন রঙ বিষয়ক পরামর্শক ফেবার বিরেনের কথা উল্লেখ করে তিনি বলেছেন, ১৯৬০ সালে দেশটির ডিপার্টমেন্ট স্টোরের কর্মীদের শৌচাগারে দীর্ঘ সময় কাটানোর প্রবণতা প্রতিরোধে শৌচাগারের দেয়ালে এরকম একটি রঙ ব্যবহার করা হয়েছিল।

প্যানটোন-৪৪৮সি রঙটাতে এত খারাপ কী আছে? রাইট বলছেন, এ রঙটা অনেকটা মানুষের বর্জ্যের রঙের মতো।

কোনো পণ্যের বিপণনে রঙের বিশেষ গুরুত্ব থাকায় সিগারেটের প্যাকেটে এ রঙ ব্যবহারের সিদ্ধান্তকে গুরুত্বপূর্ণ হিসেবে মনে করা হচ্ছে।