মেইন ম্যেনু

এতো অত্যাচার আল্লাহ সহ্য করবে না

সাবেক রাষ্ট্রপতি ও জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ বলেছেন, ‘দেশে এখন বিচারহীনতার সংস্কৃতি চলছে। আজ কথা বললেই গুম-খুন হতে হয়। জীবনের নিরাপত্তা নেই। সাধারণ মানুষ বাঁচার নিরাপত্তা চায়। এতো অত্যাচার আল্লাহ সহ্য করবে না।’

বুধবার বিকেল সাড়ে ৫টায় পটুয়াখালী জেলা শিল্পকলা একাডেমিতে জেলা জাতীয় পার্টির দ্বি-বার্ষিক সম্মেলনে প্রধান অতিথি বক্তব্যে তিনি এ মন্তব্য করেন।

বাংলাদেশ ব্যাংকের রিজার্ভ চুরির প্রসঙ্গে এরশাদ বলেন, ‘ব্যাংকের ৩৫ হাজার কোটি টাকা লুট হয়েছে, বিচার হলো না। দুশ মেয়ে ধর্ষিত হয়েছে, ৩৬ শিশু খুন হয়েছে- কোনো কিছুরই বিচার হয়নি।’ জাতীয় পার্টি ক্ষমতায় এলে দেশে আবারো ন্যায় বিচারের সংস্কৃতি ফিরিয়ে আনা হবে বলে মন্তব্য করেন সাবেক এ রাষ্ট্রপতি।

জাতীয় পার্টিই দেশের একমাত্র ভরসা-এমন দাবি করে পার্টির চেয়ারম্যান বলেন, ‘বিএনপি আন্দোলনের নামে অনেক মানুষ পুড়িয়ে হত্যা করেছে। এ কারণে সাধারণ মানুষ তাদের গ্রহণ করবে না। দেশে জাতীয় পার্টি এখন একমাত্র ভরসা।’

ক্ষমতাসীন আ.লীগকে উদ্দেশ করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বিশেষ দূত এরশাদ বলেন, ‘বিএনপি জামায়াতকে উৎখাত করতে চাইলে জাপাকে শক্তিশালী করুন। আমার পাশে দাঁড়ান। কিন্তু ইউপি নির্বাচনে আমাকে কয়টি আসন দিয়েছেন?

জেলা পার্টির ওই সম্মেলনে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন- জাতীয় পার্টির কো-চেয়ারম্যান জিএম কাদের, মহাসচিব রুহুল আমিন হাওলাদার, প্রেসিডিয়াম সদস্য সুনীল শুভ রায়, জাতীয় ছাত্র সমাজের কেন্দ্রীয় সভাপতি সৈয়দ ইফতেখার হাসানসহ কেন্দ্রীয় ও জেলা জাপার নেতারা।

সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটির আহ্বায়ক ও নবগঠিত কমিটির সভাপতি আব্দুর রাজ্জক খানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সম্মেলনের শুরুতে স্বাগত বক্তব্য দেন সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটির সদস্য সচিব ও নবগঠিত কমিটির সাধারণ সম্পাদক খায়রুল আলম মামুন।

দ্বি-বার্ষিক ওই সম্মেলনে সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের নাম ঘোষণা করেন হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ।