মেইন ম্যেনু

এবছর ওমরাহ ভিসা পাচ্ছেন ৫৫ হাজার বাংলাদেশি

বাংলাদেশকে কালো তালিকা ভুক্ত করে প্রায় এক বছর বন্ধ রাখার পর ওমরাহ ভিসার দুয়ার খুলে দিল সৌদি সরকার। একই সঙ্গে এবছর ওমরাহ ভিসায় আরো ৫৫ হাজার বাংলাদেশি সৌদি আরব যেতে পারবেন বলে জানিয়েছেন সৌদি সরকার। এরআগে শনিবারই একদল ওমরাহ হজযাত্রী নিয়ে সৌদি অ্যারাবিয়ান এয়ারলাইন্সের একটি নিয়মিত ফ্লাইট ঢাকা ছাড়ে।

জানা যায়, বাংলাদেশি হজ এজেন্সিরা জেদ্দাস্থ তাদের চুক্তিভিত্তিক এজেন্সিগুলোর কাছে মুফা বা ছাড়পত্র চেয়ে পাঠালে তারা চাহিদা-মাফিক মুফা ঢাকাস্থ সৌদি দূতাবাসে প্রেরণ করে। এরপর বাংলাদেশি এজেন্সিগুলো ভিসা প্রার্থীর পাসপোর্ট জমা দেন সৌদি দূতাবাসে। মুফা দেখে ভিসা ইস্যু করে সৌদি দূতাবাস।

সূত্রে আরো জানা গেছে, ওমরাহ ভিসার মাধ্যমে আদম পাচার এবং সৌদি আরব গিয়ে কয়েক হাজার বাংলাদেশির ফেরত না আসার কারণে বাংলাদেশকে কালো তালিকাভুক্ত করে গত বছরের মার্চ থেকে ভিসা প্রদান বন্ধ করে দেয় সৌদি কর্তৃপক্ষ।

এরপর তারা আদম পাচারে জড়িত বাংলাদেশি হজ এজেন্সিগুলোর একটি তালিকাও সরকারের হাতে তুলে দেয়। সরকারও অভিযোগের প্রমাণ সাপেক্ষে ১০৪টি এজেন্সির বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করে। এদের মধ্যে ৬৯টির লাইসেন্স বাতিল ও অনেককে আর্থিক জরিমানা করে। কয়েকটি এজন্সির এখনও তদন্ত হচ্ছে। সরকারের এসব পদক্ষেপে সন্তুষ্ট হয়ে সৌদি সরকার আবারও ওমরা ভিসা চালু করে।

এদিকে হজ এজেন্সিস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের (হাব) সভাপতি মোহাম্মদ ইব্রাহিম বাহারের নেতৃত্বে ৫ সদস্যের একটি প্রতিনিধি দল গত ৮ ফেব্রুয়ারি সৌদি আরব সফর করেন। সেখানে আদম পাচার বন্ধে বাংলাদেশ সরকারের কঠোরতা ও এজেন্সিগুলোর নেওয়া বিভিন্ন পদক্ষেপ তুলে ধরার হাব নেতারা।