মেইন ম্যেনু

এবার জিকা ভাইরাস ঠেকাতে ড্রোন

বর্তমান সময়ের একটি আলোচিত প্রযুক্তি চালকবিহীন বিমান (ড্রোন)। যুদ্ধক্ষেত্র থেকে শুরু করে নির্মাণ কাজ- সবকিছুতেই এখন ড্রোনের ব্যবহার। এমনকি পণ্য পৌঁছে দেয়ার কাজেও ব্যবহার করা হচ্ছে ড্রোন। তবে এবারের ব্যবহার ক্ষেত্রটা একটু ভিন্ন। সাম্প্রতিক সময়ের আতঙ্ক জিকা ভাইরাস ঠেকাতে এবার ব্যবহার করা হচ্ছে ড্রোন।

চীনা গণমাধ্যম সিনহুয়া জানিয়েছে, জিকা ভাইরাস ছড়ানো এডিস মশার প্রজননক্ষেত্র শনাক্ত ও ধ্বংসে ড্রোন ব্যবহার করছে ব্রাজিলের বেশ কয়েকটি নগর সরকার। বিভিন্ন বাড়ির বাগানে, চিলেকোঠায় এবং অন্যান্য জায়গায় মশা খুঁজে বের করতে ড্রোনকে কাজে লাগাচ্ছে ব্রাজিলের বৃহত্তম শহর সাও পাওলোর সরকার।

সাও পাওলোর মেয়র ফার্নান্দো হাদ্দাদ বলেন, ‘জিকা ভাইরাস সম্পর্কে সচেতনতা সংক্রান্ত কাজে স্বাস্থ্যকর্মীরা বিভিন্ন বাড়িতে যাওয়ার পর অনেক বাড়ির বাসিন্দাদের উপস্থিত পাওয়া যায় না। সেক্ষেত্রে বাড়িগুলোতে এডিস মশার কোনো প্রজননক্ষেত্র আছে কি না- তা খুঁজে বের করতে ড্রোন খুব উপকারী।’

এর আগে জিকা ভাইরাস রুখতে স্মার্টফোন অ্যাপস চালু করেছিল ব্রাজিল। জিকার আক্রমণে গত বছরের অক্টোবর থেকে ব্রাজিলে ৩৮৯৩টি শিশু ছোট মস্তিষ্ক নিয়ে জন্ম গ্রহণ করার খবর পাওয়া গেছে। যেখানে আগে একই সময়ে মাত্র ১৬০টি শিশু এ ধরনের সমস্যা নিয়ে জন্মগ্রহণ করত।



« (পূর্বের সংবাদ)
(পরের সংবাদ) »