মেইন ম্যেনু

এবার ডিমে বিসমিল্লাহ

ঈদে বাড়িতে অতিথি এসেছে। মাংস শেষ। তাই স্থানীয় সালামপুর বাজার থেকে ৪৮ টাকা দিয়ে ৬টি মুরগির ডিম কিনে নিয়ে বাড়িতে আসেন রান্টু মিয়া।

সোমবার সকাল সাড়ে ৭টার দিকে রান্টু মিয়ার স্ত্রী আলেয়া ৬টি ডিম সেন্ধ করে। পরে ডিমগুলো খোসা ছাড়ানোর এক পর্যায়ে একটি ডিমের গায়ে লালচে কি যেন দাগ দেয়া আছে। বাড়ির সদস্য ও অতিথিরা ডিম দেখার পর দেখেন সেন্ধ ডিমের উপরে আরবিতে বিসমিল্লাহ লেখা আছে।

এমন ঘটনা ঘটেছে নাটোরের লালপুর উপজেলার আড়বাব ইউনিয়নের ছোট শেরপাড়া গ্রামের রান্টু মিয়ার বাড়িতে। আল্লাহ অশেষ রহমতে বিভিন্ন সময়ে মাংস আবার কখনও মাছে গায়ে আল্লাহ লেখার কথা শুনা গেলেও এবার ডিমের গায়ে বিসমিল্লাহ লেখা রয়েছে বলে জানান স্থানীয়রা।

আস্তে আস্তে এক কান দু কান হতে হতে গ্রামে ছড়িয়ে পড়লে উৎসুক গ্রামবাসীসহ আশেপাশের গ্রামের অনেক মানুষ এই ডিম দেখেতে ভিড় করছে। ডিম দেখে কেউ কেউ বলছে আল্লাহ লেখা রয়েছে তবে বেশি ভাগ মানুষই বিসমিল্লাহ লেখা রয়েছে।

রান্টু মিয়া জানান, ডিমটি দেখার জন্য অনেক মানুষ তার বাড়িতে ভিড় করছে। ডিমটি না খেয়ে বর্তমানে ফ্রিজে রেখে দিয়েছি। তবে যারা দেখছে সবাই বলছে ডিমে আরবিতে বিসমিল্লাহ লেখা রয়েছে।