মেইন ম্যেনু

এবার পুলিশ ভেরিফিকেশনের নামে যৌনসন্ত্রাসের শিকার এক কলেজ ছাত্রী

পাসপোর্ট করতে অনলাইনে আবেদন করেছিলেন ভারতের দক্ষিণ ২৪ পরগনার ক্যানিংয়ের এক তরুণী।ভেরিফিকেশনের জন্য পুলিশের পক্ষ থেকে ফোনও এসেছিল।কিন্তু এক ডিআইবি অফিসার তার শ্লীলতাহানি করেছেন বলে অভিযোগ করেছেন তিনি। ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এপিবি আনন্দের এক খবরে এ তথ্য জানা গেছে।

কলেজ ছাত্রী ঐ তরুণীর দাবি, ‘১৩ জুলাই ক্যানিং বাসস্ট্যান্ড লাগোয়া এক চেম্বারে তাকে ডেকে পাঠান ওই পুলিশ অফিসার। কাগজপত্র খতিয়ে দেখার পর, আরও কয়েকটি নথি চেয়ে ২৫ জুলাই ফের চেম্বারে যেতে বলা হয়।’

কলেজ ছাত্রী গেলে সেদিন তাকে কুপ্রস্তাব দেন ওই ডিআইবি অফিসার। তরুণীর শ্লীলতাহানি করা হয় বলেও অভিযোগ করেছেন ঐ তরুণী।

বাড়িতে ফিরে ৩০ জুলাই পুলিশ সুপারের কাছে অভিযোগ জানান তিনি। যদিও অভিযুক্ত ডিআইবি অফিসারের দাবি, পুলিশ ভেরিফিকেশনের জন্য প্রয়োজনীয় সব নথি দিতে পারেননি তরুণী। পাসপোর্ট পাওয়ার পথ প্রশস্ত করতে মিথ্যে অভিযোগ করেছেন তিনি।

লিখিত অভিযোগের প্রেক্ষিতে, পুলিশ সুপার জানিয়েছেন, ঘটনার তদন্ত শুরু হয়েছে।