মেইন ম্যেনু

এবার ১০ম শ্রেণির ছাত্রকে নির্মমভাবে হত্যা

পীরগঞ্জে ১০ম শ্রেণি পড়ুয়া সুমন নামের এক মাদরাসা ছাত্রকে হত্যা করা হয়েছে। শনিবার সকালে বড় আলমপুর গ্রাম থেকে তার লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। নিহত সুমন উপজেলার বর্নিত গ্রামের খষ্টি পশ্চিম পাড়ার সাইদুর রহমানের ছেল ও পাটগ্রাম দাখিল মাদরাসার ১০ম শ্রেণির ছাত্র।

পুলিশ ও নিহতের পারিবারিক সুত্রে জানা গেছে, সুমন তার গ্রামের বন্ধুদের সঙ্গে দলভূক্ত হয়ে ১৩ জন মিলে গত ২০১৫ সালে ‘নিউমডেল ক্লাব’ নামে একটি সমিতি গঠন করে। ওই ক্লাবের ক্যাশিয়ার সে। গত বৃহস্পতিবার রাতে সমিতির পূর্বের হিসেব সম্পন্ন করে নতুনভাবে ঋন প্রদানের কথা ছিলো। পূর্ব নির্ধারিত সভায় সুমনের অনুপস্থিতের কারণে অন্যান্য সদস্যরা উপস্থিত হলেও সভা হয়নি। গত শুক্রবার সকালে ওই গ্রামের একটি ইউক্যালিপ্টাস বাগানে ইউক্যালিপ্টাস গাছের সঙ্গে দু’পা বাঁধা সুমনের লাশ পড়ে থাকতে দেখে ইউপি চেয়ারম্যান ও পুলিশে খবর দেয় লোকজন।মুহুর্তে এ খবর ছড়িয়ে পড়লে শত-শত নারী-পুরুষ ঘটনাস্থলে ভিড় জমায়। পরে পুলিশ সুরুতহাল রিপোর্ট তৈরি শেষে লাশ উদ্ধার করে থানায় নেয়।

ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুর রহমান বলেন, ১০ম শ্রেণিতে অধ্যায়নরত একজন ছাত্রকে মধ্যযুগীয় বর্বরতায় দুর্বৃত্তরা হত্যা করে অন্ডকোষ কেটে দিয়েছে। তিনি জড়িতদের খুজে বের করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তীর দাবি জানান।পীরগঞ্জ থানার এসআই নজিবুল ইসলাম জানান, এ হত্যাকাণ্ডটি লোমহর্ষক ও অমানবিক। এ ব্যাপারে নিহতের পিতা বাদী হয়ে হত্যা মামলা করেছে। আসামিদের গ্রেফতারে পুলিশ মাঠে নেমেছে।