মেইন ম্যেনু

এমন ঘটনা শুনেছেন? এক ম্যাচে ৪৩ গোল! গোলকিপার গেলেন হাজতে

যে কোনও খেলাতেই রেকর্ড হয়। আবার সেই রেকর্ড ভেঙেও যায়। বিশেষজ্ঞরা বলে থাকেন, রেকর্ড তো গড়া হয় ভাঙার জন্যই।

যে কোনও খেলাতেই রেকর্ড হয়। আবার সেই রেকর্ড ভেঙেও যায়। বিশেষজ্ঞরা বলে থাকেন, রেকর্ড তো গড়া হয় ভাঙার জন্যই। কিন্তু জার্মানিতে যে ঘটনা ঘটল, তা সবকিছুকেই যেন ছাপিয়ে গেল।

অলিভার কান, লোথার ম্যাথাউজের লোয়ার ডিভিশনের একটি ফুটবল ম্যাচের ফলাফল রীতিমতো চমকে দেওয়ার মতোই। পিএসভি ওবেরহউজেন ও এসভি ভনডেরওর্টের মধ্যে খেলার ফলাফল ৪৩-০। ওবেরহউজেন ৪৩ গোল দিল ভনডেরওর্টকে।

একটা ম্যাচে এত গোল হয়? একটা, দুটো গোল করতেই মাথার গাম পায়ে ফেলার জোগাড় হয়, সেখানে এতগুলো গোল! এ তো অবিশ্বাস্য ব্যাপার। প্রথমার্ধে প্রতি দু’ মিনিটে একটি করে গোল খাচ্ছিলেন ভনডেরওর্টের গোলকিপার মার্কো কুইওটেক। খেলার হাফ টাইমে ৩৫-০ গোলে এগিয়ে ছিল ওবেরহউজেন। দ্বিতীয়ার্ধে কিছুটা ভালো খেলে মাত্র ৮টি গোল খান মার্কো। সব মিলিয়ে স্কোরলাইন দাঁড়ায় ৪৩-০।

ম্যাচের একটা সময়ে ভনডেরওর্টের আট জন ফুটবলারই দাঁড়িয়ে পড়েছিলেন। সৌজন্য দেখিয়ে ওবেরহউজেনও নিজেদের তিন জন ফুটবলার কমিয়ে আট জনে ম্যাচ খেলে। ম্যাচ হয়ে যাওয়ার পাঁচ দিন বাদে ভনডেরওর্টের ফুটবলাররা যখন অনুশীলনে মগ্ন ছিলেন, তখন পুলিশ এসে ধরে নিয়ে যায় গোলকিপার মার্কোকে। কিন্তু কী কারণে ধরা হল গোলকিপারকে? কারণ অবশ্য জানা যায়নি।

জিজ্ঞাসাবাদের পরেই অবশ্য গোলকিপার মার্কোকে ছেড়ে দেওয়া হয়। তবে কি গড়াপেটার গন্ধ রয়েছে? ক্লাবও এই ব্যাপারে চুপ। পুলিশও মুখে কুলুপ এঁটেছে।