মেইন ম্যেনু

এমপিপুত্র রনির ফের দুই দিনের রিমান্ড

জোড়া খুনের অভিযোগে মহিলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সংরক্ষিত আসনের এমপি পিনু খানের পুত্র বখতিয়ার আলম রনির ফের দুই দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত।

মঙ্গলবার মামলার সুষ্ঠু তদন্তের জন্য রনিকে আদালতে হাজির করেন ডিবি পুলিশের এসআই দিপক কুমার দাস। এ সময় তিনি রনির সাত দিনের রিমান্ড আবেদন করেন। শুনানি শেষে ঢাকা মহানগর হাকিম আমিনুল হক দুই দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

এর আগে ২৮ জুন ডিবি পুলিশের এসআই দিপক কুমার দাস ঢাকা মহানগর হাকিম আমিনুল হকের আদালতে রনিকে হাজির করে রিমান্ড আবেদন করেন। সেদিন রিমান্ড আবেদনের ওপর প্রাথমিক শুনানি অনুষ্ঠিত হয়। মামলার প্রয়োজনীয় কাগজপত্রসহ (সিডি) পরবর্তী শুনানির জন্য ৩০ জুন দিন ধার্য করেছিলেন আদালত।

২৪ জুন ঢাকা মহানগর হাকিম মাহবুবুর রহমান রনির বিরুদ্ধে চার দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন। ১ জুন চার দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন আদালত।

মামলা সূত্রে জানা যায়, ১৩ এপ্রিল রাত পৌনে ২টার দিকে রাজধানীর নিউ ইস্কাটনে মদ্যপ অবস্থায় বখতিয়ার আলম রনি একটি কালো রঙের প্রাডো গাড়ি থেকে এলোপাতাড়ি গুলি ছুড়লে তাতে অটোরিকশাচালক ইয়াকুব আলী ও রিকশাচালক আবদুল হাকিম আহত হন। পরে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসাপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান তারা।

এ ঘটনায় নিহত হাকিমের মা মনোয়ারা বেগম অজ্ঞাত পরিচয় কয়েক জনকে আসামি করে ১৫ এপ্রিল রাতে রমনা থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। ২৪ মে মামলার তদন্তের দায়িত্ব দেওয়া হয় পুলিশের গোয়েন্দা বিভাগকে (ডিবি)। তদন্তভার পাওয়ার পর ৩১ মে এলিফ্যান্ট রোডের বাসা থেকে বখতিয়ার আলম রনিকে আটক করে ডিবি পুলিশ। এরপর আদালতে আত্মসমর্পণ করে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন রনির অন্য বন্ধুরাও।