মেইন ম্যেনু

এমপিপুত্র রনির বিরুদ্ধে সাক্ষ্য গ্রহণ ২৬ মে

রাজধানীর ইস্কাটনে জোড়া খুনের ঘটনায় দায়ের করা মামলায় এমপিপুত্র বখতিয়ার আলম রনির বিরুদ্ধে সাক্ষ্য গ্রহণের জন্য ২৬ মে দিন ধার্য করেছেন আদালত।

ঢাকার দ্বিতীয় অতিরিক্ত মহানগর দায়রা জজ সামছুন নাহার রোববার সময়ের আবেদন মঞ্জুর করে এ দিন ধার্য করেন।

রোববার মামলার সাক্ষ্য গ্রহণের দিন ধার্য ছিলো। হরতালের কারণে রনিকে কারাগার থেকে আদালতে হাজির করতে না পারায় রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী(এপিপি) মোহাম্মদ মাকসুদ সাক্ষ্য গ্রহণ পেছানোর জন্য সময়ের আবেদন করে।আদালত আবেদন মঞ্জুর করে সাক্ষ্য গ্রহণের জন্য ২৬ মে দিন ধার্য করেন।

উল্লেখ্য, বখতিয়ার আলম রনি মহিলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক (ভারপ্রাপ্ত) ও সংরক্ষিত আসনের সংসদ সদস্য পিনু খানের ছেলে।

২০১৫ সালের ১৩ এপ্রিল গভীর রাতে নিউ ইস্কাটনে মদ্যপ অবস্থায় রনি নিজ গাড়ি থেকে এলোপাতাড়ি গুলি ছোড়ে। এতে রিকশাচালক হাকিম ও অটোরিকশাচালক ইয়াকুব আলী আহত হন। পরে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ১৫ এপ্রিল হাকিম এবং ২৩ এপ্রিল ইয়াকুব মারা যান।

ওই ঘটনায় নিহত হাকিমের মা মনোয়ারা বেগম ২০১৫ সালের ১৫ এপ্রিল রমনা থানায় অজ্ঞাত কয়েকজনকে আসামি করে মামলা করেন।

ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ ২৪ মে মামলাটি তদন্তের দায়িত্ব পাওয়ার পর গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে ৩১ মে এলিফ্যান্ট রোডের বাসা থেকে বখতিয়ার আলম রনিকে আটক করে।

২০১৫ সালের ২১ জুলাই এমপিপুত্র বখতিয়ার আলম রনিকে একমাত্র আসামি করে আদালতে অভিযোগপত্র (চার্জশিট) দাখিল করেন ঢাকা মহানগর পুলিশের গোয়েন্দা শাখার (ডিবি) উপ-পরিদর্শক (এসআই) দীপক কুমার দাস।

২০১৬ সালের ৬ মার্চ এমপিপুত্র বখতিয়ার আলম রনির বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করেন ঢাকার দ্বিতীয় অতিরিক্ত মহানগর দায়রা জজ সামছুন নাহার।