মেইন ম্যেনু

‘এমপি লিটনের বুকে ও পিঠে ৩টি গুলি লেগেছিল’

গাইবান্ধা-১ (সুন্দরগঞ্জ) আসনের সরকার দলীয় সংসদ সদস্য (এমপি) মঞ্জুরুল ইসলাম লিটনের ময়নাতদন্ত সম্পন্ন হয়েছে। তার বুকে ও পিঠে ৩টি গুলি বিদ্ধ হয়েছিল। রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রোববার সকালে ময়নাতদন্ত সম্পন্ন হয়।

রংপুর মেডিকেলের অধ্যক্ষ অনিমেষ মজুমদার এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, ফরেনসিক বিভাগের প্রধান নারায়ণ চন্দ্র সাহার নেতৃত্বে তিন সদস্যের মেডিকেল টিম ময়নাতদন্ত করেন। লিটনের বুকে ২টি ও পিঠে ১টি গুলি লেগেছিল। ছোট গুলিগুলো রিভলবার অথবা পিস্তলের হবে। কিডনি ও ফুসফুসে অতিরিক্ত রক্ষক্ষরণের কারণেই তার মৃত্যু হয়েছে।

এমপি লিটনের মরদেহ তার বড় বোন আফরোজা বারির কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। বর্তমানে মরদেহ রংপুর পুলিশ লাইন্সে নেওয়া হয়েছে। সেখানে জানাজা শেষে হেলিকপ্টারে করে ঢাকায় নেওয়া হবে এমপি লিটনের মরদেহ।

শনিবার সন্ধ্যায় সুন্দরগঞ্জের বামনডাঙ্গায় অবস্থিত সাহাবাজ গ্রামের বাড়িতে বৈঠকখানার ঘরে লিটন টেলিভিশন দেখছিলেন। হঠাৎ করে মোটরসাইকেলে করে তিন যুবক বাড়িতে আসে। ওই যুবকরা হেলমেট পরা ছিল। একজন মোটরসাইকেল নিয়ে বাইরে দাঁড়িয়ে ছিলেন। দু’জন বরান্দায় এসে এমপি লিটনের অবস্থান জানতে চান। পরে তিনি ঘরে আছে বুঝতে পেয়ে দুই যুবক ঘরের দরজা খুলেই এলোপাতাড়ি গুলি ছোড়ে। এরপর তারা দৌড়ে ঘর থেকে বের হয়ে মোটরসাইকেলে করে পালিয়ে যায়।