মেইন ম্যেনু

ওজন মাপতে গিয়ে যে ভুলগুলো করছেন আপনিও!

ওজন পরিমাপের যন্ত্রের সাথে মানুষের সম্পর্কটাই একেবারে আলাদা স্বাদের। কারো সাথে সেটা তিক্ততার, কারো সাথে ভয়ের কিংবা অবহেলার। এই যেমন- পাঁচ মিনিট আগেই ওজন মাপা শেষ। সেটাকে মাথা থেকে ঝেড়ে ফেলে আবার যন্ত্রের ওপর চড়ে বসা। কিংবা ওজন বেড়ে গিয়েছে এই ভয়ে মাসের পর মাস ওজন মাপার যন্ত্রের কাছ থেকে দূরে থাকা। কথাগুলো শুনতে খুব পরিচিত মনে হলে নিজের সাথে মিলিয়ে নিন একবার। দেখবেন এদের কোন না কোন একটা মিলে যাচ্ছে আপনার সাথেও। কিন্তু এই অহেতুক বাতিকগুলো কি আসলেই ঠিক? না! মোটেই নয়। আর এমনই ওজন পরিমাপের সাথে জড়িয়ে থাকা আমাদের করা ভুলগুলো চলুন জেনে আসি একবার।

১. অতিরিক্ত ওজন পরিমাপ করা

ওজন মাপা শরীরের যত্নের জন্যে দরকারি ও উপকারী। তবে তাই বলে একটু পরপর একই ঘটনার পুনরাবৃত্তি করলে মোটেই সেটা উপকারী কিছুর পর্যায়ে থাকেনা। বরং প্রতিদিন ওজন মাপাটাকে বিশেষজ্ঞরা অস্বাস্থ্যকর বলেও মনে করেন। এতে করে ব্যপারটির প্রতি অহেতুকভাবে আসক্ত হয়ে যেতে পারেন আপনি। যেটা আপনার মানসিক স্বাস্থ্যকে করে তুলতে পারে দূর্বল ও অসুস্থ।

২. খাওয়ার পরে ওজন পরিমাপ

খুব স্বাভাবিকভাবেই খাওয়ার পর, বিশেষ করে রাতের খাবার সারার পর আমাদের ওজন একটু বেশিই হয়ে থাকে। কারণ এ সময় অন্যসব সময়ের চাইতে একটু বেশি পরিমাণ খেয়ে থাকি আমরা। তো, আপনি যদি বেছে বেছে ঠিক সেসময়েই নিজের ওজন পরিমাপ করতে যান তাহলে সেটা মোটেই আপনার জন্যে ভালো কোন ফলাফল বয়ে আনবেনা।

৩. বাইরে থাকাকালীন সময়ে ওজন পরিমাপ

বাইরে বের হওয়ার সময় নিশ্চয় একটা ভালো পোশাক পরিধান করেন আপনি? সেইসাথে হাতে থাকে একটা ব্যাগ, চোখে রোদচশমা, মাথায় টুপিসহ আরো আনুষাঙ্গিক জিনিসপত্র। এখন সেই জিনিসপত্রসহ যদি আপনি আপনার ওজন পরিমাপ করেন তাহলে সেটা ঠিকঠাক হবে কী করে? এছাড়াও এখনকার অতিরিক্ত গরমে আপনার শরীরের পানির পরিমাণও ঘামের কারণে কমে যেতে পারে। সেইসাথে এটা সবসময়েই মাথায় রাখবেন যে, আক্ষরিক অর্থেই কম দামে ওজন পরিমাপ করলে একদম ঠিকঠাক ওজনটা পাওয়া যায়না বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই।

৪. পিরিয়ডের সময় ওজন পরিমাপ

নারীদের ক্ষেত্রে মাসের একটা নির্দিষ্ট সময়ে ওজন মাপাটা একেবারেই বোকামি হয়ে দাড়ায়। কারণ, পিরিয়ড চলাকালীন এই সময়ে শরীরে পানির পরিমাণ বেড়ে যায়। ফলে ওজনও বেড়ে যায় স্বাভাবিকভাবে। তাই এই ঝামেলা থেকে দূরে থাকতে পিরিয়ডের ভেতরে ২ থেকে সাতদিন পর্যন্ত ওজন পরিমাপ করা থেকে বিরত থাকুন।

৫. কার্পেটের ওপরে যন্ত্র রাখা

এ ব্যাপারটি সবসময় মাথায় রাখবেন যে ওজন পরিমাপের সময় পরিমাপক যন্ত্রটি মোটেই কোন কার্পোট বা এ ধরনের কিছুর ওপরে রাখতে যাবেন না। কারণ এতে করে ঠিক পরিমাপটা বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই আসেনা। এবং সেই সাথে চেষ্টা করুন ওজন পরিমাপের সময় মানসিকভাবে হাসিখুশি থাকতে। কারণ আপনার মানসিক চাপের প্রভাব কিছুটা হলেও ওজনের ওপর পড়ে।