মেইন ম্যেনু

ওভারিয়ান ক্যান্সারের সাধারণ এবং প্রধান লক্ষণগুলো

ওভারিয়ান ক্যান্সারকে নীরব ঘাতক বলা হয়ে থাকে। অন্যান্য ক্যান্সারের মতো এটির লক্ষণ অনেক দিন ধরে দেখা দেয় না। খুব সাধারণ সমস্যা নিয়মিত ভাবে হতে থাকলে ওভারিয়ান সমস্যা আছে বলে ধরে নেওয়া হয়। শুরুতে যদি ডাক্তার দেখানো হয় তবে এটি ভাল হয়ে যায়। সাধারণ সমস্যা মনে করে যদি অবহেলা করেন তবে এটি ক্যান্সারে পরিণত হতে খুব বেশি সময় লাগে না। বেশিরভাগ ওভারিয়ান ক্যান্সার এমন সময় ধরা পড়ে যখন ক্যান্সারের জীবাণু সারা শরীরের ছড়িয়ে পড়ে। তখন আর কিছুই করার থাকে না। জেনে রাখুন ওভারিয়ান ক্যান্সারের প্রধান লক্ষণগুলো।

১। অস্বাভাবিক ব্যথা

আপনার তলপেটে অস্বাভাবিক ব্যথা হবে যা বদহজম বা পিরিয়ডের ব্যথা থেকে আলাদা। এইরকম ব্যথা দুই থেকে তিন সপ্তাহ পর্যন্ত স্থায়ী হতে পারে।

২। কোমরের উপরের অংশে ব্যথা

আপনার পেটে অসহ্য ব্যথার কারণে পিঠের নিচের অংশে ব্যথা হতে পারে। ব্যথাটি সাধারণ ব্যথা থেকে অনেকটা ভিন্ন হবে। এই রকম ব্যথা হলে নিজে ঔষধ না খেয়ে চিকিৎসকের পরামর্শ নিন।

৩। বদহজম

হজমের সমস্যা কি প্রায়ই হচ্ছে? তাহলে একে হালকা ভাবে নেবেন না। বদহজম, বমি বমি ভাব, গ্যাস, বুক জ্বালা ইত্যাদি এগুলো সব ওভারিয়ান ক্যান্সারের লক্ষণ। তাই সাবধান হোন এখনই।

৪। ঘনঘন প্রস্রাব

ওভারিনের ক্যান্সারের অন্যতম আরেকটি লক্ষণ এটি। ইউরিন ইনফেকশন কারণে এটি হতে পারে, কিন্তু যদি অনেকদিন ধরে এমন হয় তবে দেরি না করে দ্রুত চিকিৎসকের পরামর্শ নিতে হবে।

৫। ক্ষুধা কমে যাওয়া

ওভারিয়ান ক্যান্সার হলে শরীরের মেটাবলিজম প্রক্রিয়ায় প্রভাব পড়ে। যার কারণে আপনি যে খাবার খান তা আর হজম হয় না। ফলে ক্ষুধা কমে যায় এবং খাওয়ার রুচি হারিয়ে যায়।

৬। ক্লান্তি

আপনি কি খুব অল্প কাজে বেশি ক্লান্ত হয়ে যান? এমনটি হলে সাবধান। হ্যাঁ হয়তো এটি ওভারিয়ান ক্যান্সারের লক্ষণ নাও হতে পারে, তবে অল্প কাজে বেশি ক্লান্ত হয়ে যাওয়া যে কোন বড় রোগের পূর্ব লক্ষণ।

৭। কোষ্ঠকাঠিন্য ও ডায়রিয়া

কোষ্ঠকাঠিন্য ও ডায়রিয়া দুটি বিপরীত সমস্যা হলেও ওভারিয়ান ক্যান্সারে এই দুটি সমস্যা একসাথে দেখা দিতে পারে। বেশিদিন এর কোনটিতে ভুগতে থাকলে অবিলম্বে চিকিৎসকের পরামর্শ নিতে হবে।

৮। হঠাৎ ওজন কমে যাওয়া

ওভারিয়ান ক্যন্সারের প্রধান ১০টি লক্ষণের মধ্যে এটি অন্যতম। ক্যান্সারের শুরু দিকে এই লক্ষণটি দেখা দিয়ে থাকে। ডায়েট বা ব্যায়াম ছাড়া হঠাৎ করে যদি আপনার ওজন অনেক কমে যায়, তবে দ্রুত চিকিৎসকের কাছে যাওয়া উচিত।

৯। গোপনাঙ্গে রক্তপাত

অনেক মহিলাই একে ঋতুচক্রের সমস্যা ভেবে এড়িয়ে যান। তবে অনিয়মিতভাবে বার বার হলে বিষয়টি এড়িয়ে যাওয়া উচিত হবে না। বেশির ভাগ ওভারিয়ান ক্যান্সারের শুরুর লক্ষণ এটি হয়ে থাকে। মেনোপজের পর হঠাৎ করে রক্তপাত হয়ে তবে তবে অব্যশই বিলম্ব না করে চিকিৎসকের কাছে যাওয়া উচিত। কারণ এটি যেকোনো ক্যান্সারের অন্যতম একটি লক্ষণ।

১০। পেট ফুলে যাওয়া

ওভারিয়ান ক্যান্সারের হঠাৎ করে পেট বা হিপ ফুলে যেতে পারে। আপনি কি পেটে গ্যাস আছে এমন অনুভব করেন? এবং হঠাৎ করে আপনার জামাকাপড় টাইট হয়ে যায়, তবে সতর্ক হোন। হয়তো টিউমার বড় আকার ধারণ করে ফেলেছে যার কারণে এই সমস্যাগুলো দেখা দিয়েছে।

তথ্যসূত্র

10 Warning Signs Of Ovarian Cancer

boldsky.com

Ovarian Cancer: Early Signs & Symptoms

8 Early Warning Signs Of Ovarian Cancer You Shouldn’t Ignore

লেখাটি রিভিউ করেছেন

জান্নাতুত তাসনিম

এমবিবিএস

শহীদ সোহরাওয়ার্দি মেডিকেল কলেজ