মেইন ম্যেনু

কথা কাটাকাটির জেরে মহিলাকে বিবস্ত্র করে গণপিটুনি, দেখুন ভিডিও

গণপিটুনির ঘটনায় উত্তপ্ত অশোকনগর। গণপিটুনির শিকার হন এক মহিলা-সহ দু’জন। ভারতের অশোকনগর থানার গুমা ২ নম্বর পঞ্চায়েতের দাতারি এলাকায় গত ১১ অগস্ট একটি কারখানার পাঁচিলের পাশে গলায় ফাঁস দেওয়া অবস্হায় সুরজিৎ ঘোষ (২৮) নামে এক যুবকের দেহ উদ্ধার হয়। বাড়ির লোকেরা অভিযোগ করেন, কেউ খুন করে দেহ ফেলে গেছে।

শনিবার সকালে সুরজিতের দিদি ও এলাকার কয়েকজন মহিলা ওই এলাকার বরুণ দাসের বাড়িতে জানতে যায় যে ঘটনার আগের দিন মৃত সুরজিৎ তাঁদের বাড়িতে এসেছিল কিনা। এই কথা শুনে বরুণ ও তাঁর স্ত্রী তাঁদের সঙ্গে খারপ ব্যাবহার করেন বলে অভিযোগ। এই থেকে কথা কাটাকাটির জেরে শুরু হয় গণপ্রহার। আক্রান্ত হন বরুণ দাস ও তাঁর স্ত্রী চম্পা।

মৃত সুরজিৎ-এর দিদির অভিযোগ, ঘটনার আগের দিন রাতে ওই বাড়িতে বসে বরুণ, চম্পা ও বেচা নামে এক ব্যক্তির সঙ্গে তাঁর ভাই মদ্যপান করে। ভাই ওই পরিবারের কাছে অনেক টাকা পেত বলেই গলায় ফাঁস দিয়ে সুরজিৎকে ওরা মেরে ফেলে বলে অভিযোগ। এদিন সকালে এলাকার লোকজন এই ঘটনা শুনে বরুণ, চম্পা ও বেচার উপরে চড়াও হয়ে মারধর করে।

খবর পেয়ে পুলিশ আক্রান্তদের উদ্ধার করতে গেলে প্রথমে বাধার মুখে পড়ে। পরে অশোকনগর থানা থেকে আরও বাহিনী ঘটনাস্থলে গিয়ে আক্রান্তদের উদ্ধার করে। আক্রান্ত চম্পা তখন প্রায় বিবস্ত্র। তিনজনকেই বারাসত জেলা হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এই ঘটনায় এখনও কেউ গ্রেফতার হয়নি।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন