মেইন ম্যেনু

কপালের লিখন, না যায় খণ্ডন

ভাগ্যে থাকলে কি না হয়! নাসির হোসেনকে দিয়েই সেটা আবারো প্রমাণিত হলো। টেস্ট দল ঘোষণার পরের দিনই মাহমুদুল্লাহ রিয়াদের ইনজুরির কারণে ভারত সিরিজ থেকে বাদ পড়া এবং নাসিরের অন্তর্ভুক্তি, সবই যেন গল্পের মতো। সে যায় হোক, সুযোগ যখন পেয়েছেন সেটা কাজে লাগানোর ব্যাপারে বদ্ধ পরিকর নাসির।

সর্বশেষ সাদা পোশাকে নাসির মাঠে নেমেছিলেন গত বছরের সেপ্টেম্বরে। সেবার প্রতিপক্ষ ছিলো ওয়েস্ট ইন্ডিজ। ওই সিরিজই কাল হয়ে দাঁড়ায় টেস্টে এক শতক আর ছয়টি অর্ধশতকের মালিকের।

এদিকে হঠাৎ করে টেস্ট দলে সুযোগ পাওয়াটা সৌভাগ্যের বলে মানছেন নাসির। আর এই সুযোগটাকে কাজে লাগাতে চান উল্লেখ করে একটি ইংরেজি দৈনিককে নাসির বলেন, ‘সত্যি কথা বলতে, এই গতবছরের পর আমি টেস্ট খেলিনি তাই সুযোগের অপেক্ষাতে ছিলাম কবে জায়গা পাবো। ইচ্ছা রয়েছে, ভারতের বিপক্ষে মূল একাদশে সুযোগ পেলে শতভাগ দিয়ে খেলার।’

‘পারফরম্যান্স করতে না পারলে সেটা ক্রিকেটারদের জন্যেও অনেক খারাপ হয়। আমি অনেক শঙ্কিত ছিলাম নিজের ফর্ম নিয়ে, যার প্রতিফলন ঘটেছে আমার পারফরম্যান্সে বিশেষ করে টেস্টে। তারপর ভালো করার চেষ্টা করেছি, ফলাফল বিশ্বকাপে সুযোগ পাওয়া’ , যোগ করেন নাসির।

নাসির জানান, তিনি দুবছর আগের চাইতে অনেক পরিপক্ক। তাই তিনি জানেন এখন কিভাবে খেলা উচিত।

প্রসঙ্গত, আগামী ১০ জুন থেকে ফতুল্লাতে শুরু হবে একমাত্র টেস্ট ম্যাচটি। ওই ম্যাচকে সামনে রেখেই অনুশীলনে ঘাম ঝরাচ্ছেন নাসিররা।