মেইন ম্যেনু

কবরের পাশে মরতে বসেছে লিটনের প্রিয় দুটি কুকুর

জ্ঞান, বুদ্ধি, চিন্তা করার ক্ষমতা, ভালোবাসার অনুভূতিসহ কত হাজার রকমের বৈশিষ্ট্য যে মানুষকে অন্য প্রাণী থেকে আলাদা করেছে তার হিসেব করা মুশকিল। অন্য জীবদের ভালোবাসা, কর্তব্যবোধ বা কৃতজ্ঞতার অনুভূতি নেই বলেই মনে করে অনেক মানুষ।

কিন্তু আসলেই কী তাই? আমরা অন্য প্রাণীদের সঙ্গে যোগাযোগ করতে পারি না বলেই হয়তো তাদের অনুভূতি নেই বলে মনে করি। কিন্তু তা ঠিন নয়। মানুষের প্রতি অন্য প্রাণীদের ভালোবাসার অবাক করা ঘটনা ঘটেছে এবার বাংলাদেশে।

গত শনিবার (৩১ ডিসেম্বর) নিহত গাইবান্ধা-১ আসনের সরকারদলীয় সংসদ সদস্য মঞ্জুরুল ইসলাম লিটনের পোষা দুটি কুকুর এমনই ভালোবাসার প্রমাণ দিয়েছে। তার মৃত্যুর পর থেকে কবরের পাশে না খেয়ে মরতে বসেছে এই কুকুর দুটি। এমপি লিটন ওই কুকুর দুটির নাম রেখেছিল টাইগার ও কালু।

এমপি লিটন ঘাতকের গুলিতে নিহত হওয়ার পর থেকেই তার অতি প্রিয় দুটি বিদেশি অ্যালসেশিয়ান কুকুর বিষণ্ন হয়ে শুয়ে আছে প্রভুর কবরের পাশে। কেউই ওদের কিছুই খাওয়াতে পারছে না।

এমপি লিটন নিজেই ওদের খাবার দিতেন এবং পরিচর্যা করতেন। অত্যন্ত প্রভুভক্ত ওই কুকুর দুটি সারারাত লিটনের এই বিশাল বাড়ি পাহারা দিয়ে রাখতো।

কিন্তু প্রভুর মৃত্যুর পর থেকেই বিষণ্ন এই প্রাণী দুটি এখন নাওয়া খাওয়া ছেড়ে দিয়ে মরতে বসেছে। এ যেন মানুষের সাথে প্রাণীর এক অনন্য ভালোবাসা।