মেইন ম্যেনু

কবি নজরুল বিশ্ববিদ্যালয়ে নজরুল জয়ন্তীর শুভ উদ্বোধন

মোঃ ওয়াহিদুল ইসলাম : জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের ১১৭তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষ্যে জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ে ৩ দিনব্যাপী অনুষ্ঠানের প্রথমদিনের অনুষ্ঠান গত ২৫-০৫-২০১৫ তারিখ বুধবার অনুষ্ঠিত হয়ে গেলো। প্রথমে প্রশাসনিক ভবনের সামনে কবি নজরুলের প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের মাননীয় মন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম এবং মাননীয় উপাচার্য অধ্যাপক ড. মোহীত উল আলম। এরপর ‘গাহি সাম্যের গান’ মঞ্চে পায়রা অবমুক্ত ও বেলুন উড়িয়ে অনুষ্ঠানের শুভ উদ্বোধন ঘোষণা করেন মাননীয় মন্ত্রী।

আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের মাননীয় মন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম। কবি নজরুলের অমর স্মৃতির প্রতি গভীর শ্রদ্ধা নিবেদন করে প্রধান অতিথি তাঁর বক্তব্যে বলেন, কবি নজরুল, রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর এবং বঙ্গবন্ধু একই সূত্রে গাঁথা। কবি নজরুল ছিলেন দারিদ্র্যের এবং নিবেদিত মানুষের কবি। তিনি সবসময় অন্যায়ের বিরুদ্ধে বজ্রকণ্ঠ।

অনুষ্ঠানের উদ্বোধনী পর্বে সভাপতিত্ব করেন জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ের মাননীয় উপাচার্য অধ্যাপক ড. মোহীত উল আলম। তিনি তাঁর বক্তব্যে বলেন, বাংলাদেশের বাস্তবায়ন করেছিলেন জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, আর কাব্যিক স্বপ্ন দেখেছিলেন কবি কাজী নজরুল ইসলাম। জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ে দক্ষ জনশক্তি তৈরি করে একটি আধুনিক বিশ্ববিদ্যালয়ে রূপদানের স্বপ্ন বাস্তবায়নের প্রত্যয় ব্যক্ত করেন মাননীয় উপাচার্য।

বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সাবেক সচিব ড. রণজিৎ কুমার বিশ্বাস, বিটিভির সাবেক মহাপরিচালক ও বিশিষ্ট নাট্য ব্যক্তিত্ব ম. হামিদ, প্রাবন্ধিক ও গবেষক অধ্যাপক শান্তনু কায়সার এবং মাননীয় ট্রেজারার প্রফেসর এ এম এম শামসুর রহমান। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন রেজিস্ট্রার মো: আমিনুল ইসলাম। সঙ্গীত বিভাগের শিক্ষার্থীরা সূচনা সঙ্গীত পরিবেশন করেন।

পরে নজরুলের দার্শনিকতা শীর্ষক আন্তর্জাতিক সেমিনারে সভাপতিত্ব করেন প্রাবন্ধিক ও গবেষক অধ্যাপক শান্তনু কায়সার।
এর আগে অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি চারুকলা বিভাগ কর্তৃক আয়োজিত বার্ষিক শিল্পকর্ম প্রদর্শনী- ২০১৬ এরও আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন ঘোষণা করেন। শতাধিক ছবি এই প্রদর্শনীতে স্থান পায়।

শেষে ‘গাহি সাম্যের গান’ মঞ্চে বিশ্ববিদ্যালয়ের সঙ্গীত বিভাগের প্রযোজনায় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে কবি নজরুলের গান, কবিতা, নৃত্য অনুষ্ঠিত হয়। সবশেষে কাজী নজরুল ইসলাম রচিত, নুসরাত জাহান শিমুর নির্দেশনায় নাট্যকলা ও পরিবেশনাবিদ্যা বিভাগের পরিবেশনায় বাদল বরিষণে নাটক পরিবেশিত হয়। সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে নজরুল বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃক সম্মাননা প্রাপ্ত বিশিষ্ট নজরুল সঙ্গীত শিল্পী ফাতেমাতুজজোহরা সঙ্গীত পরিবেশন করেন।