মেইন ম্যেনু

কলারোয়ায় আজ বিসর্জনের মধ্য দিয়ে দুর্গোৎসবের সমাপ্তি ঘটছে

সাতক্ষীরার কলারোয়ায় আজ মা দেবী দুর্গার বিসর্জনের মধ্য দিয়ে এ বছর সনাতন ধর্মাবলম্বীদের সর্ববৃহৎ ধর্মীয় অনুষ্ঠানের সমাপ্তি ঘটছে।

শারদীয় দুর্গোৎসবের মহাসপ্তমী থেকে বিজয়া দশমী পর্যন্ত উপজেলার ৪২ টি মন্ডপ পরিদর্শন করেন স্থানীয় সংসদ সদস্য, উপজেলা চেয়ারম্যান, ইউএনও, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান, উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি), থানার ওসিসহ পৌরসভার সম্ভাব্য মেয়র ও কাউন্সিলর প্রার্থীরা। উৎসব চলাকালে ওই সকল মন্দির পরিদর্শনে যেয়ে সনাতন ধর্মাবলম্বীদের সাথে শুভেচ্ছা বিনিময় করেন সকল রাজনৈতিক সামাজিক নেতৃবৃন্দ।

এ সময় পৌরসভার ও ইউনিয়ন পরিষদের সম্ভাব্য মেয়র, চেয়ারম্যান ও কাউন্সিলর প্রার্থীদের কেউ কেউ মন্ডপ কমিটির তেৃবৃন্দের হাতে আর্থিক সহায়তা হিসেবে নগদ অর্থ তুলে দেন।

পূজা মন্ডপ পরিদর্শন করেন তালা-কলারোয়ার সংদস্য এড. মুস্তফা লুৎফুল্লাহ, উপজেলা আ.লীগের সভাপতি উপজেলা চেয়ারম্যান ফিরোজ আহম্মেদ স্বপন, ইউএনও উত্তম কুমার রায়, সহকারী কমিশনার (ভূমি) সানজিদা জেসমীন, থানার অফিসার ইনচার্জ শেখ আবু সালেহ মাসুদ করিম, ওসি(তদন্ত) শেখ সফিকুর রহমান, উপজেলা আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক ভাইস চেয়ারম্যান ও সম্ভাব্য মেয়র প্রার্থী আমিনুল ইসলাম লাল্টু, সম্ভাব্য মেয়র প্রার্থী সাবেক উপজেলা আ.লীগের আহ্বায়ক সাজেদুর রহমান খান চৌধুরী মজনু, সম্ভাব্য মেয়র প্রার্থী ভারপ্রাপ্ত পৌর মেয়র রফিকুল ইসলাম, সম্ভাব্য মেয়র প্রার্থী আরাফাত হোসেন, সম্ভাব্য মেয়র প্রার্থী শহিদুল ইসলাম, সম্ভাব্য মেয়র প্রার্থী শেখ শরিফুজ্জামান তুহিন, সম্ভাব্য মেয়র প্রার্থী মুনসুর আলি, পৌর কাউন্সিলর মাগফুর রহমান রাজু, মাস্টার মনিরুজ্জামান বুলবুল, শেখ জামিল হোসেন, জাহাঙ্গীর হোসেন, আকিমুদ্দীন আকি, ফারহানা হোসেন, সেলিনা পারভীন, লুৎফুন্নেছা লুতুসহ বিভিন্ন ইউনিয়নের সম্ভাব্য চেয়ারম্যান প্রার্থীগণ।

এছাড়াও পূজা মন্ডপগুলো পরিদর্শন করেন পৌর আ.লীগের সভাপতি আজিজুর রহমান, উপজেলা যুবলীগের আহ্বায়ক কাজী আসাদুজ্জামান সাহাজাদা, যুগ্ম আহ্বায়ক আসাদুজ্জামান তুহিন, উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি শেখ ইমরান হোসেনসহ নেতৃবৃন্দ।

এদিকে, বুধবার সন্ধ্যায় পৌরসভাধীন পালপাড়া, হরিতলা, মুরারীকাটি, গোপীনাথপুর, তুলসীডাঙ্গা ঘোষপাড়া ও গোয়ালঘাটা পূজা মন্ডপ পরিদর্শনকালে পৌরসভার মেয়র প্রার্থী, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান আমিনুল ইসলাম লাল্টু পূজামন্ডপ প্রতি ব্যক্তিগত উদ্যোগে ৫ হাজার করে টাকা প্রদান করেন বলে সাংবাদিকদের জানিয়েছেন।

অনুরূপভাবে অন্যান্য সম্ভাব্য মেয়র প্রার্থীরাও বিভিন্ন মন্ডপে আর্থিক সহায়তা প্রদান করেছেন বলে জানা গেছে। উল্লেখ্য, এ বছর সনাতন ধর্মাবলম্বীদের দুর্গোৎসবে গড়া প্রতীমাগুলোর মধ্যে পৌরসদরের উত্তর মুরারীকাটি পালপাড়া মন্ডপ’র প্রতিমাটি সকলের দৃষ্টি কেঁড়েছিলো। প্রতিবারের মতো এবারও এই প্রতিমাটি ভক্ত ও দর্শনার্থীদের কাছে উপভোগ্য হয়ে ওঠে। তাই দর্শনার্থীদের বিচারে এবছরও উত্তর মুরারীকাটি পালপাড়া প্রতিমাটি সেরা বলে বিবেচিত হয়।