মেইন ম্যেনু

কলারোয়ায় স্ত্রীর মামলায় স্বামী জেলে

সাতক্ষীরা কলারোয়ায় যৌতুকের দাবিতে মমতাজ বেগম(৩৪) নামের এক গৃহবধরু নির্যাতন করার মামলায় স্বামী মোখলেছুর রহমান(৪০) জেল হাজতে।
শনিবার রাতে তাকে বাড়ি থেকে আটক করে।
এজাহারের বিবরণে জানা যায়, গত ১৮বছর পূর্বে সাতক্ষীরা সদরের পায়রাডাঙ্গা গ্রামের আব্দুল ওহাবের ছেলে মোখলেছুর রহমান এর সাথে কলারোয়া উপজেলার হরিনা গোয়ালচাতর গ্রামের মিজানুর রহমানের মেয়ে মমতাজ বেগমের ইসলামী শরিয়াত মোতাবেক বিয়ে হয়।
বিয়ের আগে স্বামীকে নগত ২লাখ টাকা যৌতুক দিয়েছে। বিয়ের পর থেকে বিভিন্ন সময় স্বামী মোখলেছুর, স্ত্রী মমতাজের নিকট যৌতুকের নগদ টাকার জন্য চাপ দেয়। নিরুপায় হয়ে স্ত্রী বাবার নিকট থেকে কয়েক দফায় যৌতুকের টাকাও এনে দেয় স্বামীকে। দাম্পত্য সম্পর্কের এটানা পোড়ার মধ্য দিয়ে তাদের ঘরে দুই মেয়ে সিমা খাতুন(১৬) ও সুমাইয়া খাতুন(৩) এর জন্ম হয়।
গত ১নভেম্বর রবিবার রাতে ফের স্বামী মোখলেছুর, তার স্ত্রীকে পিতার বাড়ি থেকে ১লাখ টাকা যৌতুক আনতে বলে। এতে সে চরমভাবে অনীহা প্রকাশ করলে দু’জনের মধ্যে বাক বিতন্ডা শুরু হয়ে স্ত্রীকে এলোপাতারী লাঠি দিয়ে মারপিট করে।
এ ঘটনায় মমতাজ বাদি হয়ে কলারোয়া থানায় একটি মামলা (নং-৭,৭/১১/১৫) দায়ের করে। সেই মামলার স্বামী মোখলেছুর আসামী হওয়ার তাকে আটক করে জেল হাজতে পাঠান হযেছে বলে জানা যায় থানার ডিউটি অফিসার রতন জানায় ।