মেইন ম্যেনু

কষ্টটাও আমার কাছে আনন্দের

ঢাকাই ছবির প্রথম সারির নায়িকা ববি। গত ঈদে মুক্তি পেয়েছিলো ববি অভিনীত ‘রাজাবাবু’ ছবিটি। এদিকে তিনি অভিনয় করতে যাচ্ছেন ‘মাল্টা’ নামে নতুন একটি ছবিতে। ছবি ও অন্যান্য প্রসঙ্গে কথা হলো ববির সঙ্গে।

এই মুহূর্তের ব্যস্ততা?
ববি: এখনকার ব্যস্ততা মূলত ‘মাল্টা’ ছবি নিয়েই। আন্তর্জাতিক মানের একটি ছবি হতে যাচ্ছে এটি। আমার জন্য তো বটেই সবার জন্যই এটি একটি সুখবর।

‘রাজাবাবু’ ছবির রেসপন্স কেমন পেলেন?

ববি: ছবিটি ব্যবসায়িকভাবে সফল হয়েছে।প্রচুর রেসপন্স পাচ্ছি। গত বছর ঈদে শাকিব খানের সঙ্গে ‘হিরো-দ্য সুপারস্টার ছবিতে অভিনয় করেছিলাম। সেটাও সুপারহিট হয়েছিল।

ছবিতে অপু বিশ্বাসও ছিলেন, অপুর তুলনায় আপনার ক্যারেক্টার কম ছিলো?
ববি: দেখুন আসলে চরিত্র ছোট না বড় সেটা বিষয় না, মূল বিষয় হচ্ছে চরিত্রের গুরুত্ব। আমার চরিত্রের গভীরতা ছিলো অনেক।

আপনার ছবি প্রযোজনা খবর কি?
ববি: আপাতত অন্য সিনেমা নিয়ে ব্যস্ত থাকার জন্য নিজের ছবি নিয়ে ভাবতে পারছিনা। তবে খুব শিগগরই নিজের প্রযোজনার ছবির কাজটি শুরু করবো।

রঙিন দুনিয়া, কতটা রঙিন?
ববি: হ্যাঁ, মিডিয়া আসলেই রঙিন। তবে এই রঙিন দুনিয়ায় কাজ করতে গিয়ে অনেক কষ্টও সইতে হয়। সেটা কিন্তু আড়ালেই থেকে যায়। আমরা আমাদের দুঃখ-কষ্ট ভুলে সবাইকে আনন্দ দেওয়ার জন্য আপ্রাণ চেষ্টা করি। আর দুঃখ কষ্টের কথা জেনেই তো এখানে এসেছি। তবে যে বিষয়টি মানুষ ভালোবাসে সেখানে কষ্ট থাকলেও সেটা আনন্দের সঙ্গেই করে।

প্রতিযোগী মনে করেন কাকে?
ববি: কাউকেই না।আবার সবাইকে। কারণ আমি মনে করি কমপিটিশন না থাকলে কাজের মান উন্নত হয় না। কমপিটিশন থাকলেই আমি আমার সেরাটা দেওয়ার চেষ্টা করি। আর নোংরা প্রতিযোগিতার আমি ধার-ধারিনা।কারণ নোংরা প্রতিযোগীতা কখনোই ভালকিছু বয়ে আনে না।