মেইন ম্যেনু

কাকরাইলে আহত সেই স্কুলছাত্রী মারা গেছে

রাজধানী ঢাকার কাকরাইলে বখাটে যুবকের ছুরিকাঘাতে উইলস লিটল ফ্লাওয়ার স্কুল অ্যান্ড কলেজের অষ্টম শ্রেণির ছাত্রী সুরাইয়া আক্তার রিশা মারা গেছে। আজ রবিবার সকাল সাড়ে ১০টায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের নিবিড় পরিচর্যাকেন্দ্রে (ইনটেনসিভ কেয়ার ইউনিট-আইসিইউ) তার মৃত্যু হয়। ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ উপপরিদর্শক বাচ্চু মিয়া এ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

জানা যায়, গত ২৪ আগস্ট দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে মো. তানভীর হাসান নামে একজন কাকরাইলের ফুটওভার ব্রিজের নিচে রিশাকে রক্তাক্ত অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখেন। তাকে উদ্ধার করে প্রথমে ইসলামী ব্যাংক হাসপাতালে নিয়ে যান তানভীর। পরে উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নেয়া হয়।

নিহত রিশার মা তানিয়া আক্তার জানিয়েছিলেন, ‘ইস্টার্ন মল্লিকা মার্কেটে বৈশাখী টেইলার্সে কাপড় সেলাই করতে যাই। সেখানে কর্মরত খাইরুল নামে একটি ছেলে আমার মেয়ের দিকে কেমন করে তাকাতে থাকে। বিষয়টি মেয়ে আমাকে একাধিকাবার বলেছে। আমার ধারণা ওই খাইরুলই আমার মেয়েকে ছুরিকাঘাত করেছে।’

২৫ আগস্ট বাদি হয়ে রমনা মডেল থানায় একটি মামলা করেন রিশার মা।

নিহত সুরাইয়া আক্তার রিশার পিতার নাম রমজান আলী। তিনি পেশায় একজন চামড়ার ব্যবসায়ী। তারা পুরান ঢাকার সিদ্দিক বাজারে থাকে।