মেইন ম্যেনু

কারগিল যুদ্ধে পাকিস্তানে হামলার প্রস্তুতি নিয়েছিল ভারত

১৯৯৯ সালে কারগিল যুদ্ধের সময় পাকিস্তানের বিমানঘাঁটিতে হামলার প্রস্তুতি নিয়েছিল ভারতীয় বিমানবাহিনী। সব ধরনের প্রস্তুতি নেয়া হয়েছিল। লক্ষ্য নির্ধারণসহ হামলার জন্য নির্দিষ্ট রুটও চূড়ান্ত করা হয়েছিল। তবে শেষ পর্যন্ত হামলা চালায়নি ভারত।

বিমান বাহিনীর গোপনীয় নথিতে বলা হয়েছে, বোমা হামলা চালানোর নির্দেশের অপেক্ষায় ছিলেন যুদ্ধবিমানের পাইলটরা। তারা লাইন অফ কন্ট্রোলের খুব কাছাকাছি জায়গায় অবস্থান করছিলেন। কাশ্মীর সীমান্তের লাইন অফ কন্ট্রোল অতিক্রম করার সব প্রস্তুতি শেষ দিকে কয়েক মিনিটের সিদ্ধান্তে বাতিল করা হয়। ওই সিদ্ধান্ত বাতিল না হলে দু`দেশের মধ্যে ভয়াবহ যুদ্ধ বেধে যেত।

পাকিস্তান ও ভারতের মধ্যে তখন কাশ্মীর সীমান্তবর্তী কারগিল অঞ্চলে পুরোদমে লড়াই চলছিল। ১৯৯৯ সালের ১৩ জুন হামলার তারিখ ঠিক হয়েছিল। কোন পথে হামলা চালানো হবে তাও নির্ধারণ করা হয়ে গিয়েছিল। প্রয়োজনে ব্যবহারের জন্য যুদ্ধবিমানের পাইলটদের জন্য পাকিস্তানি মুদ্রা সংগ্রহ করে রাখা হয়েছিল।

ভারতের রাজধানী নয়াদিল্লিতে দেশটির তৎকালীন পররাষ্ট্রমন্ত্রী যশোবন্ত সিংয়ের সঙ্গে পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী সারতাজ আজিজের বৈঠক ভেঙ্গে যাওয়ার পরই পাকিস্তানে হামলা চালানোর পরিকল্পনা করেছিল ভারত।

সারতাজ আজিজ ভারত ছাড়ার পর রাতে যুদ্ধবিমানের পাইলটদের নিয়ে গোপন বৈঠক করা হয়েছিল। ১৩ জুন ভোরে হামলার জন্য সবাইকে প্রস্তুতি নিতে বলা হয়। হামলার জন্য দুটি মিগ ২১ এবং চারটি মিগ-২৭ বিমানসহ ১৬টি যুদ্ধবিমান প্রস্তুত করা হয়। তবে সব প্রস্তুতি সম্পন্ন করা হলেও চূড়ান্ত নির্দেশনা না পাওয়ায় সে যাত্রায় পাকিস্তানে হামলা ভেস্তে যায়। বেঁচে যায় বহু প্রাণ।