মেইন ম্যেনু

কারাগারে সাকার সঙ্গে পরিবারের সাক্ষাৎ

মানবতাবিরোধী অপরাধের দায়ে ফাঁসির দণ্ডপ্রাপ্ত বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য সালাউদ্দিন কাদের (সাকা) চৌধুরীর সঙ্গে সাক্ষাৎ করেছেন পরিবারের সদস্যরা। তারা বৃহস্পতিবার বেলা সাড়ে ১২ টার দিকে কারাগারে প্রবেশ করেন এবং বেলা দেড়টার দিকে বের হয়ে আসেন।

সাকা চৌধুরীর ছোট ছেলে হুম্মাম কাদের চৌধুরী জানান, বাবার সঙ্গে সাক্ষাতের জন্য কারা কর্তৃপক্ষের কাছে অনুমতি চেয়ে আবেদন করা হয়। কারা কর্তৃপক্ষ অনুমতি দিলে তিনি, তার মা, বোনসহ ১৫ সদস্য দেখা করতে দুপুর ১২টা ২০ মিনিটের দিকে কারা ফটকের সামনে পৌঁছান। কিন্তু কারা কর্তৃপক্ষ নয়জনকে সাক্ষাতের জন্য কারাগারের ভেতরে ঢুকতে দেয়। বাকি ছয়জনকে কারাগারের ভেতরে প্রবেশ করতে দেয়া হয়নি।

কেন্দ্রীয় কারাগারের সিনিয়র জেল সুপার জাহাঙ্গীর কবির এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

কারাগারের ভেতরে প্রবেশ করেন সাকার স্ত্রী ফরহাত কাদের, বড় ছেলে ফজলুল কাদের চৌধুরী ফাইয়াত ও তার স্ত্রী তানিয়া খন্দকার, ছোট ছেলে হুম্মাম কাদের চৌধুরী, মেয়ে ফারজিন কাদের ও জামাতা জাফর খান, সাকার দুই বোন জুবাইদা কাদের ও হাসিনা কাদের এবং কাজিন ইকবাল হোসেন।

বুধবার সালাউদ্দিন কাদের চৌধুরী ও জামায়াত নেতা আলী আহসান মোহাম্মাদ মুজাহিদের রিভিউ আবেদন খারিজ করে ফাঁসির আদেশ বহাল রাখার পর থেকেই কেন্দ্রীয় কারাগারে নিরাপত্তাব্যবস্থা জোরদার করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার ভোর থেকে ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারের আশপাশে র‌্যাব, পুলিশ, বিজিবির বাড়তি সদস্য মোতায়েন রয়েছে।

মানবতাবিরোধী অপরাধের দায়ে সালাউদ্দিন কাদের চৌধুরীর ফাঁসির রায় বুধবার বহাল রাখেন আপিল বিভাগ। সাকা চৌধুরীকে ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারের কনডেমড সেলে রাখা হয়েছে।