মেইন ম্যেনু

কারা ফটকের সামনে অতিরিক্ত কাঁটাতারের ব্যারিকেড

ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগার ঘিরে অতিরিক্ত নিরাপত্তা নেওয়া হয়েছে। প্রধান ফটকের সামনে বিপুল সংখ্যক পুলিশ, র‌্যাব ও গোয়েন্দা সংস্থা লোকজন মোতায়েন করা হয়েছে।

সরেজমিন দেখা যায়, কারা অধিদপ্তরের গেট থেকে নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। এখান থেকে কারাগার কেন্দ্রিক নিরাপত্তাকর্মীরা আগত লোকজন এবং যানবাহনে নজরদারি করছেন। মঙ্গলবার বিকেল ৩ টার পর কারাগারের প্রধান ফটকের সামনে পুলিশের সঙ্গে র‌্যাব দিয়ে তিনস্তরের নিরাপত্তা নেওয়া হয়েছে।

এর মধ্যে বিভিন্ন গোয়েন্দা সংস্থার লোকজন সাদা পোশাকে সামনের রাস্তা দিয়ে চলাচলকরা মানুষের গতিবিধি নজরদারি করছেন। ক্লোজ সার্কিট ক্যামেরাগুলো প্রতিনিয়ত সক্রিয় থাকছে কি না- তাও পর্যবেক্ষণ করা হচ্ছে। মতিউর রহমান নিজামীর ফাঁসি হওয়ার আগ পর্যন্ত চকবাজার থানা পুলিশের সঙ্গে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন থাকবে।

চকবাজার থানার উপপরিদর্শক (এসআই) বারেক জানান, কারাগারের প্রধান গেটের সামনে চার প্লাটুন পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। প্রয়োজন হলে এ সংখ্যা বাড়তে পারে। র‌্যাবের অর্ধশতাধিক সদস্যও যোগ দিয়েছে। র‌্যাব-১০ সার্বক্ষণিক কাজ করছে।

লালবাগ জোনের উপ-পুলিশ কমিশনার মুফিদুল ইসলাম বিকেলে বলেন, রাতে এ নিরাপত্তা বাড়ানো হতে পারে। এ জন্য পর্যাপ্ত সংখ্যক ফোর্স প্রস্তুত রয়েছে।

ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারে জামায়াতে ইসলামীর আমির মাওলানা মতিউর রহমান নিজামীর মৃত্যুদণ্ড যে কোনো সময় কার্যকর করা হবে।