মেইন ম্যেনু

‘কার্যালয় দখলের চেষ্টা সরকারের হীন উদ্দেশ্য’

‘আসল বিএনপি’ নামের একটি সংগঠনের নেতাকর্মীদের বারবার বিএনপির কার্যালয় দখলের চেষ্টাকে সরকারের ‘হীন অপকৌশল এবং অপকর্ম’ হিসেবে অভিহিত করেছে বিএনপি।

ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে ‘এই ধরনের কাজ’ থেকে সরে আসতে সরকারের প্রতি আহ্বানও জানিয়েছে দলটি।

রোববার বিকেলে রাজধানীর নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এ কথা বলেন বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী আহমেদ।

এর আগে বিকেলে পৌনে ৪টার দিকে ‘আসল বিএনপি’র নেতা কামরুল হাসানের শতাধিক সমর্থক বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয় দখল করতে এসে নেতা-কর্মীদের প্রতিরোধের মুখে ফিরে যায়। এ সময় ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। নয়াপল্টনের রাস্তায় এ সময় একটি গাড়িতে অঙ্গিসংযোগ করা হয়।

প্রসঙ্গত, গত ২ জানুুয়ারিও বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয় দখল করতে এসে নেতা-কর্মীদের প্রতিরোধে ‘আসল বিএনপি’ কর্মীরা পিছু হটে চলে যায়।

সংবাদ সম্মেলনে রিজভী বলেন, ‘সরকার যেহেতু গণবিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে সেজন্য বিভিন্ন ধরনের অন্যায়-অবিচারের পথ বেছে নিয়েছে। একদিকে বিএনপির নেতাকর্মীদের জুলুম-নির্যাতন করে ব্যতিব্যস্ত রাখছে, অন্যদিকে বিভিন্ন উপায়ে সাংগঠনিক কাজে বাধা দেওয়ার নাটক-ষড়যন্ত্র করা হচ্ছে।’

সরকারকে উদ্দেশ্য করে বিএনপির এই নেতা বলেন, ‘টোকাইদের ধরে নিয়ে এসে আরেকটি বিএনপি গঠনের চেষ্টা সফল হবে না। এ ধরনের ছেচড়া চেষ্টা মানুষ বিশ্বাস করবে না। এর আগে অনেকবার চেষ্টা করেছেন সফল হননি। কারণ বিএনপি মেলামাইন বা চীনা মাটির নয় যে ভেঙে যাবে। বিএনপি হচ্ছে ইস্পাত কঠিন জাতীয়তাবাদী শক্তির ঐক্য।’

বিএনপির শান্তিপূর্নভাবে রাজনৈতিক কর্মকান্ডে বাধা দিতেই সরকার এ ধরনের ঘটনা ঘটাচ্ছে বলেও অভিযোগ করেন রুহুল কবির রিজভী।

তিনি বলেন, যেখানে বিএনপির পাঁচ নেতাকর্মীকে একসঙ্গে দাঁড়াতে দেয় না, সেখানে শতাধিক লোককে পুলিশ মিছিল করতে দিয়েছে। সরকার গোয়েন্দাদের দিয়ে পাড়া-মহল্লার বস্তি থেকে টোকাই দিয়ে মিছিল করালেই সব হয়ে যাবে না। মানুষ সব বোঝে।

বিএনপির এই নেতা বলেন, ‘সরকার যদি এ ধরনের কাজ অব্যাহত রাখেন, তাহলে জনগণের শাস্তি হবে ভয়ংকর। এই বিচারের যে রায় হবে তাতে আপনারা মেরুদন্ড সোজা করে দাড়াতে পারবেন না।’

সংবাদ সম্মেলনে বিএনপির প্রশিক্ষন বিষয়ক সম্পাদক কবির মুরাদ সহদফতর সম্পাদক তাইফুল ইসলাম টিপু, স্বেচ্ছাসেবক দলের যুগ্ম সম্পাদক আমিনুল ইসলাম প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।