মেইন ম্যেনু

কিশোরগঞ্জে নির্বাচনী প্রচারণায় ব্যস্ত সময় পার করছে যুবদল নেতা ডালিম

খাদেমুল মোরসালিন শাকীর, কিশোরগঞ্জ (নীলফামারী) প্রতিনিধি॥ আসছে আগামী ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে প্রথমবারের মত স্থানীয় সরকার নির্বাচন দলীয় প্রতীকের মাধ্যমে। আর সে নির্বাচনে দলীয় প্রতীক নিয়ে নির্বাচন করার জন্য মাঠে ময়দানে চষে বেড়াচ্ছেন দলের প্রার্থীরা। দলীয় মনোনয়ন নিতে ইউনিয়নের নেতা কর্মীদের বাড়ীতে গিয়ে নিয়মিত ভাবে দলের পক্ষে নির্বাচনের মনোনয়ন প্রত্যাশায় সুপারিশের চেষ্ঠা করছেন। এবারে কিশোরগঞ্জ সদর ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে মনোনয়নের দৌড়ঝাঁপ শুরু করেছেন বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী যুবদলের উপজেলা সভাপতি এ কে এম তাজুৃল ইসলাম ডালিম। ছাত্র জীবন থেকে নানান চড়াই উৎড়াইকে অতিক্রম করে দলের বিভিন্ন কর্মকান্ডে স্বতঃস্ফুর্ত ভাবে কাজ করছেন এ নেতা। তরুন এ নেতা কিশোরগঞ্জ সদর ইউনিয়নের বাজারের দক্ষিন পার্শ্বে কামাড় পাড়া গ্রামে ১৯৭৯ সালের ৭ আগষ্ট পিতা আফছার আলীর ঘরে ও মা তাসকিনা বেগমের কোলে জন্ম গ্রহন করেন। ২ভাই ২ বোনের মধ্যে এ কে এম তাজুল ইসলাম ডালিম বড়। ১৯৮৫ সালে কিশোরগঞ্জ কিন্ডার গার্টেন স্কুলে (শিশু নিকেতন) প্রথম শ্রেণীতে পড়ালেখা শুরু করেন। ১৯৯৪ সালে ডিমলা খগাখড়ি বাড়ী উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এস এস সি ১৯৯৬ সালে ডিমলা জনতা মহাবিদ্যালয় থেকে এইচ এস সি ১৯৯৯ সালে তারাগঞ্জ ও/এ মহাবিদ্যালয় থেকে বি এ ও ২০০৭ সালে এশিয়ান ইউনিভার্সিটি থেকে এম এ (মাষ্টার্স) শেষ করেন। ২০০৪ সালে পড়ালেখার পাশাপাশি সেবা মূলক প্রতিষ্ঠান রংপুর সেবা হসপিটালের পরিচালক হিসাবে দায়িত্ব পালন শুরু করে বর্তমান পর্যন্ত সেই সেবা প্রদান করে আসছেন। ব্যবসার সাথে সাথে কিশোরগঞ্জ বি এম কলেজে অফিস সহকারী হিসাবে কলেজ প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকে কর্মরত আছেন। দীর্ঘ দিন কিশোরগঞ্জ উপজেলার বাহিরে পড়ালেখার পাশাপাশি জাতীয়তাবাদী ছাত্র রাজনীতির সঙ্গে কাজ করছেন তিনি। ১৯৯৯ সালে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী ছাত্রদলের সাথে জোড়ালো ভাবে কাজ শুরু করেন তাজুল ইসলাম ডালিম। পরে দলের সাথে কাজ করতে করতে ২০০৫ সাল থেকে কিশোরগঞ্জ উপজেলা ছাত্রদলের সভাপতি হয়ে ২০১২সাল পর্যন্ত ছাত্রদলের সভাপতি হিসাবে কাজ করেন তিনি। ২০১২ সাল থেকে উপজেলা বিএনপি’র যুব বিষয়ক সম্পাদক হিসাবেও কাজ করেন তিনি। ২০১৩ সাল থেকে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী যুবদল’র সভাপতি হিসাবে দায়িত্ব পান তিনি। সেই থেকে অদ্যাবধি পর্যন্ত কিশোরগঞ্জ উপজেলা যুবদলের সাথে কাজ করে যাচ্ছেন। তার রাজনৈতিক জীবনে দলীয় কর্মকান্ডে শতভাগ উপস্থিতি লক্ষ্য করা গেছে। দলীয় সকল কর্মকান্ডে তিনি সকল বাধাকে অতিক্রম করে দলকে সুসংগঠিত করার জন্য নিরলস পরিশ্রম করেছেন। এ কে এম তাজুল ইসলাম ডালিম’র বিশেষ গুন হচ্ছে তিনি সকল বয়সের সকল শ্রেণী পেশার মানুষের সাথে ও শিশু কিশোরদের সাথে সু-সম্পর্ক রেখে দলকে সামনের দিকে এগিয়ে নিয়েছেন। অনেক সময় উপজেলা বিএনপির সভাপতি অধ্যাপক রাজ্জাকুল ইসলাম রাজা দলীয় কর্মকান্ডের জন্য উপজেলার বাহিরে থাকলেও দলের সকল কর্মকান্ড এ কে এম তাজুল ইসলাম ডালিম পরিচালনা করেছেন। আগামী ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে দলীয় মনোনয়নের জন্য দলের হাই কমান্ড থেকে শুরু করে তৃণমূল পর্যন্ত সকল নেতা কর্মীদের কাছে সহযোগীতা কামনা করেছেন। বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দলের মনোনয়ন প্রত্যাশি এ নেতা সকল মানুষের দ্বারে দ্বারে গিয়ে নির্বাচনী প্রচারণায় ব্যস্ত সময় পাড় করছেন। তার প্রচারণায় ইউনিয়নের শিশু কিশোর,আবাল,বৃদ্ধ বনিতারাও আগামী নির্বাচনে এ কে এম তাজুল ইসলাম ডালিমকে সদর ইউনিয়ন পরিষদ’র নেতৃত্বে দেখতে চায়। এ ব্যাপারে কিশোরগঞ্জ উপজেলা যুবদলের সভাপতি এ কে এম তাজুল ইসলাম ডালিমের সাথে কথা হলে তিনি জানান,আগামী নির্বাচনে দলীয় ভাবে মনোনয়ন পেলে অত্র ইউনিয়নের মানুষের সাথে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে জনগণের সেবা করতে চাই।
সাথে ছবি আছে।