মেইন ম্যেনু

কিশোরগঞ্জে বিদ্যুতের তারে জড়িয়ে আরও একজনের মৃত্যু

খাদেমুল মোরসালিন শাকীর, কিশোরগঞ্জ (নীলফামারী) প্রতিনিধি॥ কিশোরগঞ্জ উপজেলার গাড়াগ্রাম ইউনিয়নের খামাড় গাড়াগ্রামে বিদ্যুতের তারে জড়িয়ে আরও একজনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে মৃত্যুর সংখ্যা দাড়ালো-৪ জনে।

গত ২১ আগষ্ট দিবাগত রাতে পল্লী বিদ্যুতের কর্তৃপক্ষের অবহেলায় এবং গাফিলাতির কারণে বিদ্যুতের তারে জড়িয়ে ১১জন গুরুতর আহত হয় এবং ঘটনাস্থলে একজনের মৃত্যু হয়। পরদিন সকালে একজন এবং সন্ধ্যায় আরও একজনের মৃত্যু ঘটে। তারপর সেইদিন থেকে অন্যান্যরা রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে বিভিন্ন ইউনিটে ভর্তি হয়ে চিকিৎসা সেবা গ্রহন করেন। তাদের মধ্যে মোছাব আলী আজ শনিবার ভোরে মারা যান। তার লাশ সকালে গাড়াগ্রাম ইউনিয়নের খামাড় গাড়াগ্রাম এলাকায় সকাল ১০টার দিকে বাড়ীতে নিয়ে আসলে এলাকায় শোকের ছায়া নেমে আসে। এ নিয়ে বিদ্যুৎ ষ্পৃষ্টে মৃত্যুর সংখ্যা দাড়ালো ৪ জনে।

উল্লেখ্য যে, গত ২১ আগষ্ট দিবাগত রাতে বিদ্যুৎ ষ্পৃষ্টের ঘটনায় পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি কর্তৃপক্ষ নীলফামারী পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির জিএম ইনসের আলীকে দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি দিয়েছে। এছাড়া টেপাহাট পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির অভিযোগ কেন্দ্রের দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ফারুক আহমেদ ও লাইনম্যান রুবেল হোসেনকে সাময়িক বরখাস্ত করেছে বলে একটি নির্ভরযোগ্য সুত্রে জানা গেছে। এদিকে ২২ আগষ্ট বিকেল ৫টার সময় পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির ঢাকা প্রধান কার্যালয়ের পরিচালক মশিউর রহমানের নেতৃত্বে ৩ সদস্য বিশিষ্ট একটি তদন্ত কমিটি ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

এ বিষয়ে গাড়াগ্রাম ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোসাদ্দেক হোসেন জানান, ২১আগষ্ট বিদ্যুৎ স্পৃষ্টে ১১জনের মধ্যে ঘটনার দিনে ১জন,ঘটনার পরের দিন ২জন এবং আজকে (শনিবার) ভোড়ে আরও একজনের মৃত্যুর বিষয় নিশ্চিত করেছেন।