মেইন ম্যেনু

কীভাবে সম্পর্কে আবেগ ধরে রাখবেন?

শুধু পাগলের মতো ভালোবাসলেই প্রেম দীর্ঘস্থায়ী হয় না। সম্পর্কে আবেগ বা টান না থাকলে প্রেমও থাকে না। তাই যদি সম্পর্ক চিরদিন টিকিয়ে রাখতে চান তাহলে আবেগ ধরে রাখুন। জানতে চান কীভাবে আবেগ টিকিয়ে রাখবেন? আইডিভা ওয়েবসাইটের এই তালিকাটি একবার দেখে নিতে পারেন।

সিদ্ধান্ত নেওয়ার আগে ভালো করে শুনুন

অনেকেই না শুনে না বুঝে হুট করেই যেকোনো সিদ্ধান্ত নেয়। এর প্রভাব পড়তে পারে সম্পর্কের ওপর। তাই এমন কোনো ঘটনা ঘটলে আগে সঙ্গীর কাছ থেকে পুরোটা শুনুন, তারপর সিদ্ধান্ত নিন।

দেওয়া ও নেওয়ার প্রচলন থাকতে হবে

যদি আপনি আশা করেন আপনার সঙ্গী আপনার মনমতো সবকিছু করবে তাহলে আগে তার মনমতো কিছু করার চেষ্টা করুন। দেখবেন, সম্পর্ক কতটা সুখের হয়।

নিজের সেরাটা দেওয়ার চেষ্টা করুন

সম্পর্কে কখনোই লুকোচুরি করবেন না। নিজের যতটুকু ক্ষমতা রয়েছে সবটুকু দিয়ে করার চেষ্টা করুন, ধরে রাখার চেষ্টা করুন। মনে রাখবেন, নিজের চেষ্টায়ই সম্পর্ক সুখের হয়।

সবসময় যোগাযোগ রাখা

আবেগ ধরে রাখার সবচেয়ে ভালো উপায় যোগাযোগ রাখা। জীবন সহজ ও ঝামেলাহীন করতে চাইলে একে অপরের খোঁজখবর রাখুন, যত্ন নিতে শিখুন।

সমস্যা মেনে নিতে শিখুন

জীবনে অনেক ধরনের সমস্যায় পড়তে পারেন। এই সময় দিশেহারা না হয়ে সমস্যাটি মেনে নিতে শিখুন। দেখবেন, অনেক কঠিন বিষয়ও সহজ মনে হবে।

ক্ষমা করা ও ভুলে যাওয়া শিখুন

সম্পর্কে ঝগড়া হবে এটাই স্বাভাবিক। কিন্তু এসব বিষয় বেশিদিন মনে রাখা ঠিক নয়। সঙ্গীকে ক্ষমা করতে শিখুন এবং যা হয়েছে সেগুলো ভুলে যেতে শিখুন।

ভুলেও হুমকি দেবেন না

ভালোবাসার মানুষকে কি কেউ হুমকি দেয়? ‘ব্রেকআপ করে ফেলব’, ‘ছেড়ে চলে যাব’—এ ধরনের হুমকি সঙ্গীকে না দেওয়াই ভালো। না হলে একটা সময় এসব কিছু সত্যি সত্যি ঘটলেও সঙ্গীর আফসোস হবে না।

তৃতীয় পক্ষ যেন না আসে

আপনার সমস্যার সমাধান করতে কখনোই তৃতীয় পক্ষকে আনবেন না। এতে সে সুযোগ পেয়ে যাবে, যা আপনার সম্পর্কের জন্য ক্ষতিকরও হতে পারে।

নেতিবাচক বিষয়গুলো এড়িয়ে চলুন

যতটা পারুন নেতিবাচক বিষয় থেকে দূরে থাকুন। ইতিবাচক চিন্তাভাবনা সম্পর্কে প্রাণ ধরে রাখে। সেই সঙ্গে আবেগটাও টিকে থাকে।