মেইন ম্যেনু

কী ঘটতে যাচ্ছে ইডেনে!

ভারত-পাকিস্তানের চির বৈরিতা সম্পর্কে বাড়িয়ে বলার কিছু নেই।

সেই বৈরিতা দুটি দেশের ভূ-রাজনীতি থেকে শুরু করে ক্রিকেট মাঠেও বর্তমান।

দুটি দল যখন মাঠে নামে তখন সেটা যেন আর ক্রিকেট মাঠ থাকে না, হয়ে ওঠে যুদ্ধের ময়দান।

সে কারণে ভারত-পাকিস্তানের মধ্যকার ম্যাচ অন্য যেকোনো ম্যাচের চেয়ে ক্রিকেটপ্রেমীদের বেশি মনোযোগ কেড়ে নেয়। আগামীকাল বিখ্যাত ইডেন গার্ডেনে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সুপার টেনে ভারতের মুখোমুখি হবে পাকিস্তান।

সঙ্গত কারণেই ইতিহাসের ঝাপি খুলে বসেছেন ক্রিকেট ভক্তরা। চায়ের কাপে ঝড় তুলছেন ভারত-পাকিস্তান ম্যাচ ও পরিসংখ্যান নিয়ে। কে জিতবে আগামীকাল? কেউ পাকিস্তানের পক্ষে বাজি ধরছেন। আবার কেউ ভারতের পক্ষে।

তবে যারা ভারত-পাকিস্তান দ্বৈরথের ইতিহাস জানেন তারা আজ নিঃসন্দেহে বাজি ধরার ক্ষেত্রে ধন্দে পড়ে যাবেন। কেন ধন্দে পড়বেন? কারণ, ভারত-পাকিস্তানের বিশ্বকাপ ইতিহাস ঘাটলে দেখা যায় একবারও জয়ের নাগাল পায়নি পাকিস্তান। সে সেক্ষেত্রে অনেকেই ভারতের পক্ষে বাজি ধরতে চাইবেন। কিন্তু ইডেন গার্ডেনের ইতিহাস বলে এই মাঠে পাকিস্তানের সঙ্গে কখনো পেরে ওঠেনি ভারত। তার উপর প্রথম ম্যাচে শিরোপা প্রত্যাশী বাংলাদেশের বিপক্ষে দারুণ এক জয় পেয়েছে তারা। সে কারণে অনেকে আবার পাকিস্তানের পক্ষ বাজি ধরতে চাইবে।

কিন্তু দিনশেষে জয় এক দলেরই হবে। সেক্ষেত্রে হয় বিশ্বকাপে ভারতের অপরাজিত থাকার রেকর্ড বর্ধিত হবে। না হয়, ইডেন গার্ডেনে পাকিস্তানের অপরাজিত থাকার রেকর্ড বর্ধিত হবে। ভারত জিতুক, আর পাকিস্তান জিতুক- একটি রেকর্ড কিন্তু ভেঙ্গে যাচ্ছে-ই।

বিশ্বকাপের মতো বড় আসরে পাকিস্তানের কাছে কখনো মাথানত করেনি ভারত। বিজয়ীর বেশেই মাঠ ছেড়েছে তারা। পাকিস্তানের বিপক্ষে বিশ্বকাপে ছয়-ছয়টি ম্যাচে জয় পেয়েছে ভারত। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে টানা তিন ম্যাচে জয় পাওয়ার পাশাপাশি ২০০৭ সালে টাইব্রেকারেও জয় পায় ভারত। এমন কী এশিয়া কাপের গেল দুই আসরেও ভারতের কাছে নতজানু হয়েছে পাকিস্তান।

তবে ১৯ মার্চ কলকাতার ইডেন গার্ডেনে ফেভারিটের তকমা গায়ে মেখে মাঠে নামবে পাকিস্তান। যদিও এই ম্যাচটি হিমাচল প্রদেশের ধর্মশালায় অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু নিরাপত্তাজনিত কারণে সেখান থেকে ম্যাচটি সরিয়ে পাকিস্তানের পয়মন্ত ভেন্যু ইডেন গার্ডেনে নিয়ে আসা হয়। এই মাঠে ভারতের বিপক্ষে পাকিস্তান চারটি ওয়ানডে ম্যাচ খেলেছে। চারটিতেই ভারতকে তারা ধরাশায়ী করেছে।

২০০১ সালে স্টিভ ওয়াহর বিশ্বজয়ী অস্ট্রেলিয়া দলকে ইডেন গার্ডেনে টেস্টে হারায় ভারত। ১৯৯৩ সালে মোহাম্মদ আজহারউদ্দিনের নেতৃত্বে হিরো কাপ জিতে নেয় ভারত। কিন্তু পাকিস্তানের বিপক্ষে ওয়ানডেতে এই মাঠে এখনো জয় অধরা স্বাগতিকদের জন্য।

অবশ্য আগামীকাল ক্রিকেটের সবচেয়ে ক্ষুদ্র ফরম্যাটের ম্যাচে মুখোমুখি হবে দল দুটি। সেক্ষেত্রে ব্যতিক্রম কিছু ঘটতেই পারে। যাই ঘটুক, ম্যাচটি পরিত্যক্ত না হলে একটি রেকর্ড নিশ্চিত ভেঙ্গে যাচ্ছে।

হয় ভারত বিশ্বকাপে পাকিস্তানের বিপক্ষে অপরাজিত থাকবে। না হয় বিশ্বকাপে ভারতের বিপক্ষে হারের বৃত্ত থেকে বেরিয়ে ইডেন গার্ডেনে নিজেদের জয়ের ধারাবাহিকতা বজায় রাখবে শহিদ আফ্রিদির নেতৃত্বাধীন পাকিস্তান দল।

অবশ্য এই ম্যাচে মাঠে নামার আগে ক্রিকেট গ্রেটরা পাকিস্তানের জয়ের পক্ষেই মত দিচ্ছেন। কিন্তু প্রথম ম্যাচে নিউজিল্যান্ডের কাছে ধরাশায়ী হওয়ায় মরণ কামড় দিয়ে জয়ে ফিরতে প্রস্তুত ধোনি বাহিনী।