মেইন ম্যেনু

কুকুর বাঁচালো দুই বছরের শিশুকে

দুই বছরের এক ছোট্ট শিশুকে চোখে চোখে রেখে বিপদের হাত থেকে বাঁচিয়েছে তাদের পোষা কুকুর ছানাটি। শিশুটি খেলতে খেলতে বাড়ি থেকে বেরিয়ে গিয়েছিল। আর সে সময় তার সঙ্গ ছাড়েনি কুকুরটি। শিশুটা যেখানে ঘুরেছে কুকুরটাও লেজ নাড়িয়ে পিছু নিয়েছে। কয়েক ঘণ্টা ধরে তাদের দু’জনকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছিল না। শিশুটির পরিবার খুব চিন্তায় পরে গিয়েছিল। টানা বেশ কয়েক ঘণ্টা খোঁজার পর দেখা গেল কুকুর ছানাটি পরম যত্নে ওই শিশুটিকে আগলে রেখেছে।

এই ঘটনাটি ঘটেছে অস্ট্রেলিয়ায়। সোফিয়া নামে দু’বছরের একটি শিশু মঙ্গলবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে খেলতে খেলতে দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলীয় মেলবোর্নে তাদের বাড়ি থেকে বের হয়ে যায়। সেসময় কেউ তাকে খেয়াল করেনি। কিন্তু এই ঘটনা তাদের এক বছর বয়সী কুকুর ছানা পাপ্পির চোখ এড়াতে পারেনি। শিশুটি ঘর থেকে বেরিয়ে যাওয়ার সময় কুকুরটিও তার সঙ্গে বেড়িয়ে যায়। সে সারাক্ষণ শিশুটির সঙ্গেই ছিল এবং তাকে নিরাপদেই রেখেছিল।

পুলিশ জানিয়েছে, সাত ঘণ্টা খোঁজাখুঁজির পর পাপ্পির ঘেউ ঘেউ ডাকের কারণেই উদ্ধারকর্মীরা শিশুটিকে উদ্ধার করতে সক্ষম হয়েছেন। উদ্ধারকর্মীরা সোফিয়া এবং পাপ্পিকে তাদের বাড়ি থেকে ২শ মিটার দূরে একটি বাঁধের কাছে দেখতে পেয়েছিলেন। পরে সেখান থেকে তাদের উদ্ধার করা হয়।

সোফিয়ার নিরাপদ থাকার সব ক্রেডিট কুকুর ছানাকেই দিয়েছেন তার দাদি ভেরা কুক। তিনি জানিয়েছেন, সোফিয়ার গায়ে শুধু একটা লেংটি আর একটা টি-শার্ট ছিল। মিসেস কুক আরো বলেন, ‘একটা বিষয়ই আমি ভাবছিলাম যে হতে পরে পাপ্পিই সোফিয়াকে দেখে রাখবে। যদি পাপ্পি না থাকত তবে তারা নিশ্চয়ই সোফিয়াকে খুঁজে পেত না।’

এই ঘটনার পর সোফিয়ার পরিবার খুব আনন্দের সঙ্গে জানিয়েছেন, তারা এখন থেকে পাপ্পিকে আরো বেশি ভালবাসবেন আর এই ভাল কাজের জন্য রাতে তারা পাপ্পিকে রাতে বিশেষ খাবারও দেবেন।