মেইন ম্যেনু

ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষে কুমিল্লা মেডিকেল বন্ধ ঘোষণা

কুমিল্লা মেডিকেল কলেজে (কুমেক) আধিপত্য বিস্তার নিয়ে ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষে ১০ জন আহত হয়েছেন।

বুধবার সকালে কলেজ ক্যাম্পাসে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এতে কলেজ প্রশাসন অনির্দিষ্টকালের জন্য ক্যাম্পাস বন্ধ ঘোষণা করে শিক্ষার্থীদের হল ত্যাগের নির্দেশ দিয়েছে।

কলেজ প্রশাসন ও শিক্ষার্থীদের সূত্রে জানা যায়, কলেজ ছাত্রলীগের নওশাদ ও রাহাত গ্রুপের কর্মীরা আধিপত্য বিস্তার নিয়ে মঙ্গলবার রাতে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনার পর বুধবার সকালে আবারও তারা সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। এতে অন্তত ১০ জন আহত হয়।

কুমিল্লা কোতয়ালি মডেল থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আবদুর রব জানান, মঙ্গলবার রাত দেড়টা থেকে দুই গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষ শুরু হয়। বুধবার সকালেও ২য় দফা সংঘর্ষ হয়। এতে কয়েকজন আহত হয়েছেন। বর্তমানে সেখানে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন রাখা হয়েছে।

বেলা ১২টার দিকে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ মহসিন-উজ-জামান চৌধুরী বলেন, দুই গ্রুপের সংঘর্ষ হয়েছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে কলেজ অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ ঘোষণা করে শিক্ষার্থীদের হল ত্যাগের নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

ছাত্ররা বুধবার বেলা ১১টার মধ্যে হল ত্যাগ করেছে এবং ছাত্রীরা বিকেল ৪টার মধ্যে হল ত্যাগ করবে।