মেইন ম্যেনু

কুড়িগ্রামে ই-জিপি’র সুষ্ঠু বাস্তবায়ন ও প্রসার শীর্ষক কর্মর্শালা

কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি: সরকারি ক্রয়ে ইলেকট্রনিক প্রকিউরমেন্ট (ই-জিপি) সুষ্ঠু বাস্তবায়ন ও প্রসারের জন্য সচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে জেলা পর্যায়ের কর্মশালা সোমবার কুড়িগ্রাম অভিনন্দন সেন্টারে অনুষ্ঠিত হয়। জেলা প্রশাসক খান মোঃ নুরুল আমিন এ কর্মশালার উদ্বোধন করেন।

বক্তব্য রাখেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক সার্বিক আক্তার হোসেন আজাদ, বাংলাদেশ সেন্টার ফর কমিউনিকেশন প্রোগ্রামস্ (বিসিসিপি) এর সহকারী পরিচালক বাদল হালদার, প্রোগ্রাম কো-অর্ডিনেটর মামুনুর রহমান, অধ্যক্ষ রাশেদুজামান বাবু, অ্যাডভোকেট আহসান হাবীব নীলু, দৈনিক খবরের সম্পাদক ছানালাল বকসী, প্রেস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক শ্যামল ভৌমিক প্রমুখ।

পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়ের আইএমই বিভাগের অধীন সেন্টাল প্রকিউরমেন্ট টেকনিক্যাল ইউনিট (সিপিটিইউ) বিশ^ব্যাংকের সহায়তায় পাবলিক প্রকিউরমেন্ট রিফর্ম প্রজেক্ট-২ (পিপিআরপি-২) এর আওতায় দেশ ই-জিপি সচেতনতামুলক কর্মশালা অনুষ্ঠিত হচ্ছে পর্যাক্রমে সকল জেলায়। এ কর্মশালায় অংশ নেয় সরকারি ক্রয়কারী সংস্থার প্রতিনিধি, টেন্ডার, মিডিয়া ও সুশিল সমাজের ৪০জন প্রতিনিধি।

জেলা প্রশাসক খান মোঃ নুরুল আমিন বলেন, স্বচ্ছতা, জবাবদিহিতা, দক্ষতা, সমআচরণ ও সুষ্ঠু প্রতিযোগিতা নিশ্চিতকল্পে এবং জনগণের অর্থের সর্বোত্তম ব্যবহার করার লক্ষ্যে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ২০১১ সালের ২জুন ই-জিপি পোর্টাল উদ্বোধন করে। এর মাধ্যমে সরকারি ক্রয়ে ই টেন্ডারিং চালু হয়।

আগামী বছরের মধ্যে সরকারি সকল বিভাগকে ই-টেন্ডারিয় এর আওতায় আনা হবে। বর্তমানে ৩৭টি মন্ত্রণালয়ের ১৮৫টি সংস্থার ২৩০০এর অধিক ক্রয়কারী অফিস ই-জিপি সিস্টেমে অন্তর্ভুক্ত হয়ে ক্রয়কার্য পরিচালনা করছে। ই-টেন্ডারিং এর জন্য ইতো মধ্যে ২০ হাজার ৫১৯জন টেন্ডারার ই-জিপি সিস্টেমে নিবন্ধিত হয়েছে। ৪০টি ব্যাংকের প্রায় ২হাজার শাখা এ সংক্রান্ত সেবা প্রদান করছে।