মেইন ম্যেনু

কুড়িগ্রামে জর্ডান যাওয়ার অপেক্ষায় অধূনালুপ্ত ছিটমহলের ৩৭ নারী

কে,এম, গোলাম রব্বানী, কুড়িগ্রাম থেকে: অধূনালুপ্ত ছিটমহলবাসীর নবযুগের সূচনা হলো। ৬৮ বছরের অধিকার বঞ্চিত এসব মানুষের ভাগ্যন্নোয়নের প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তার এই অঙ্গিকার বাস্তবায়নের প্রথম দফায় কুড়িগ্রামের দাসিয়ারছড়া থেকে ৩৭ জন নারীকে পাঠানো হচ্ছে জর্ডানে। সম্পূর্ণ বিনা খরচে তাদের বিদেশে পাঠানোর উদ্যোগ নেয়া হয়েছে।

রোববার দু’মাস ব্যাপি প্রশিক্ষণ কার্যক্রম সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন জেলা প্রশাসক খান মোঃ নুরুল আমিন। তিনি বলেন-প্রশিক্ষণ শেষ। এখন শুধু অপেক্ষার পালা সেই শুভ দিনের জন্য। জর্ডানে গার্মেন্টে সেক্টরে দু’হাজার নারী শ্রমিকের চাহিদা রয়েছে। পর্যাক্রমে যতটা সম্ভব ছিটমহল থেকেই এ চাহিদা পূরণ করা হবে। আর এজন্য তাদের প্রশিক্ষণ দিয়ে দক্ষ করে গড়ে তোলা হয়।

রোববার দুপুরে কুড়িগ্রাম টিটিসি (টেকনিক্যাল ট্রেনিং সেন্টার) মিলনায়তনে নারী শ্রমিকদের দু’মাস ব্যাপি প্রশিক্ষণ কার্যক্রম সমাপনী অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন অধ্যক্ষ প্রকৌশলী আইনুল হক। অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন- ট্রেড ইনচার্জ হযরত আলী, প্রশিক্ষণার্থী ফারহানা ইয়াসমিন, তপন বিশ্বাস, শরিফা আক্তার প্রমূখ।

বক্তারা বলেন, ছিটমহলের অধিবাসীদের বিদেশে কর্মসংস্থানের জন্য সরকার বিশেষ উদ্যো গ্রহন করেছে। বিশেষ করে নারীদের প্রশিক্ষণ দেয়া হবে বিনামূল্যে। পাশাপাশি তাদের যাতায়াত ও আনুসাঙ্গিক খরচের জন্য দেয়া হয় ভাতা। তাদের পাসপোর্ট, ভিসা থেকে প্ল্রেনভাড়া বহন করবে সরকার। এর মাধ্যমে অবহেলিত এ জনপদের এ মানুষগুলো মিলবে মূল স্রোতে।