মেইন ম্যেনু

‘কৃচ্ছ্র নীতিতে’ চাকরি গেল ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রীর মায়ের!

যুক্তরাজ্য সরকারের কৃচ্ছ্র নীতি চালুর ফলে চাকরি গেল দেশটির প্রধানমন্ত্রী ডেভিড ক্যামেরনের মা ম্যারি ক্যামেরনের। সরকারের খরচ কমানোর পদক্ষেপে সম্প্রতি ম্যারির প্রতিষ্ঠান বন্ধ হয়ে গেলে বেকার হয়ে পড়েন তিনি।

শুক্রবার দি ইনডিপেনডেন্ট জানায়, ক্যামেরন সরকারের কৃচ্ছ্র নীতি বাস্তবায়নে সম্প্রতি ম্যারির প্রতিষ্ঠান চিয়েভেলে অ্যান্ড এরিয়া চিলড্রেনস সেন্টার বন্ধের ঘোষণা দেওয়া। স্কুলের বাইরে সময় কাটানোর এবং শৈশবের যাবতীয় সুযোগ ভোগের এই সেন্টারে ৪৪টি শিশু রয়েছে।

সেন্টারটি বন্ধের ঘোষণার প্রতিবাদে গত মাসে সরকারের বিরুদ্ধে একটি পিটিশন দায়ের করেন প্রধানমন্ত্রী ক্যামেরনের মা ম্যারি ও বোন ক্লেয়ার কুরি। প্রধানমন্ত্রীর মা তাঁর পিটিশনে বলেন, ‘এই সেন্টার বন্ধের ঘোষণায় আমি খুবই হতাশ। কিন্তু যদি কিছুই করার না থাকে, তবে কী আর বলব। আমি সত্যিই বুঝতে পারছি না এখন কী করা উচিত।’

এ বিষয়ে প্রধানমন্ত্রীর ছেলে ক্যামেরনের সঙ্গে কথা বলেছেন কি না জানতে চাইলে তিনি সংবাদমাধ্যমকে বলেন, ‘না, কারণ আমি তাঁর কাজে হস্তক্ষেপ করতে চাই না। আপনি যদি কিছু ভালোর জন্য করেন, তবে সেটা মহৎ।’

সংবাদমাধ্যমের তথ্যমতে, ২০১০ সালে ক্যামেরনের নেতৃত্বে কনজারভেটিভ পার্টি সরকারে আসার পর এমন ৬৩১টি চিলড্রেনস সেন্টার বন্ধ হয়ে গেছে।