মেইন ম্যেনু

কেএফসিতে মুরগীর বদলে ইঁদুর ভাজা! (ভিডিও)

কেএফসির (কেন্টাকি ফ্রায়েড চিকেনের) নাম শুনলেই এখন আর জিভে পানি আসার উপায় নেই ক্রেতাদের। বাংলাদেশসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশে খাবারের মানের প্রশ্নে এর আগেও শিরোনামে আসা প্রতিষ্ঠানটি আবার খবরের শিরোনাম হয়েছে ‘ফ্রায়েড ইঁদুর’ পরিবেশন করে।

যে দেশে কেএফসির জন্ম, সেই যুক্তরাষ্ট্রেরই ক্যালিফোর্নিয়ায় এই ঘটনা ঘটেছে বলে ডেইলি মিরর, নিউজউইক জানিয়েছে।

রাজ্যের উইলমিংটনের বাসিন্দা ডিভোরিজ ডিক্সন গত বুধবার চিকেন ফ্রাইয়ের অর্ডার দিয়ে কেএফসি থেকে কেনা খাবারের বাক্স খুলে অদ্ভূতদর্শন এক বস্তু পান, যাতে ইঁদুরের মতো একটি লেজও ছিল।

ডিক্সনের জোরালো ধারণা, এটি কোনোভাবেই ভাজা মুরগি হতে পারে না। ভালোভাবে খুঁটিয়ে দেখার পর তিনি নিশ্চিত হন কেএফসি তাকে ইঁদুর ভাজা গছিয়েছে!

KFC-fried-rat-1-ed

ডিক্সন তার ফেইসবুক ওয়ালে ‘ইঁদুর ভাজার’ ছবি ও ভিডিওসহ একটি পোস্ট দিয়েছেন, যেখানে তিনি সবাইকে ফাস্টফুড খাওয়া থেকে বিরত থাকার আহ্বান জানিয়েছেন। এরপর রীতিমত তোলপাড় শুরু হয়ে যায়।

কেএফসি কর্তৃপক্ষ দাবি করেছে, অনুসন্ধানে ডিক্সনের দাবির কোনো প্রমাণ পায়নি তারা।

প্রতিষ্ঠানের একজন মুখপাত্র বলেন, “বিশ্বজুড়ে আমাদের খাদ্য নিরাপত্তা নিশ্চিত করাই আমাদের মূল লক্ষ্য। আমরা সবসময়ই এ ধরনের অভিযোগ গুরুত্ব দিয়ে গ্রহণ করি।”

ফেইসবুকে ডিক্সনের দেওয়া তথ্যমতে, গত ১০ জুন তিনি খাবারের বাক্সে ওই জিনিস পাওয়ার পরপরই কেএফসি স্টোরে ফিরে গিয়ে ব্যবস্থাপককে বিষয়টি জানান।

তিনি লিখেছেন, “শক্ত এবং রাবারের মতো বস্তুটি দেখে তা ভালোভাবে দেখতে আগ্রহী হই। ভালোভাবে লক্ষ্য করে দেখি এটি লেজসহ ইঁদুরের আকৃতির।

KFC-fried-rat-2-ed

“এটা দেখে আমার দেহে ভয়ের ঠান্ডা স্রোত বয়ে যায়। আমি কখনো এমন বিস্মিত হইনি। এখন সময় এসেছে আইনজীবীর দারস্থ হওয়ার, নিরাপদ থাকুন এবং ফাস্টফুড খাওয়া থেকে ধুরে থাকুন।”

এ ঘটনার পর কেএফসির পক্ষ থেকে একটি বিবৃতি দেওয়া হয়। এতে ভাজা মুরগিকে ডিক্সনের ‘ইঁদুর’ দাবি নাকচ করা হয়েছে।

বিবৃতিতে বলা হয়, “ক্রেতা একটি ছবিই দিয়েছেন, কারণ এতেই পরিস্কার এটি রুটিতে মোড়া মুরগির মাংস। এই ছবি এবং তিনি অন্য কাউকে জিনিসটি দেখাতে রাজি না হওয়ায় আমরা মনে করি ইচ্ছাকৃতভাবেই মানুষকে বোকা বানাতে এটা করেছেন তিনি।”

বাংলাদেশেও পুরনো সবজি সংরক্ষণ এবং খাবারের প্যাকেটে পুষ্টিমান উল্লেখ না করায় ২০১১ সালে কেএফসিকে জরিমানা গুণতে হয়েছে।