মেইন ম্যেনু

কেন বৃষ্টিতেও কমছে না গরম

গত কয়েক দিন ধরে দেশে মেঘ-রোদের খেলা চলছে। বৃষ্টিও ঝরছে মাঝে মাঝে। তবু এক অস্বস্তিকর ভাপসা গরম বিরাজ করছে। আজ সকাল থেকে রাজধানী ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন জায়গায় থেমে থেমে বৃষ্টি হলেও তাপমাত্রার পারদ কমছে না তেমন।

আবহাওয়া অফিস বলছে, গরম না কমার পেছনে কাজ করছে বাতাসে আর্দ্রতার আধিক্য। আরও কয়েক দিন বৃষ্টি হলে ক্রমান্বয়ে কমে আসবে আর্দ্রতা। তখন গরমও কমে যাবে।

আবহাওয়া অফিসের তথ্যমতে, আজ রবিবার দুপুর পর্যন্ত বাতাসে আর্দ্রতার পরিমাণ ছিল ৮৩ শতাংশ। এর আগে ছিল ৯৩ শতাংশ।

আগামী ২৪ ঘণ্টার পূর্বাভাসে আবহাওয়া অফিস বলছে, পশ্চিম মধ্য-বঙ্গোপসাগর ও তৎসংলগ্ন এলাকায় অবস্থানরত লঘুচাপটি সক্রিয় রয়েছে, যার বর্ধিতাংশ উত্তর বঙ্গোপসাগর পর্যন্ত বিস্তৃত।

মৌসমি বায়ুর অক্ষ রাজস্থান, উত্তরপ্রদেশ, মধ্যপ্রদেশ, উড়িষ্যা, বিহার, পশ্চিমবঙ্গ এবং বাংলাদেশের উত্তরাংশ হয়ে উত্তর-পূর্ব দিকে আসাম পর্যন্ত বিস্তৃত রয়েছে। অপর একটি মৌসুমি বায়ুর অক্ষের বর্ধিতাংশ মধপ্রদেশ হয়ে দক্ষিণপূর্ব দিকে লঘুচাপের কেন্দ্রস্থল পর্যন্ত বিস্তৃত।

মৌসুমি বায়ু বাংলাদেশের ওপর মোটামুটি সক্রিয় এবং উত্তর বঙ্গোপসাগরে মাঝারি অবস্থায় বিরাজ করছে। এ কারণে দেশে বৃষ্টিপাত হচ্ছে। আগামী ৭২ ঘণ্টায় বৃষ্টিপাতের প্রবণতা বাড়তে পারে বলেও আবহাওয়া পূর্বাভাস কেন্দ্রের তথ্য।

জানতে চাইলে আবহাওয়াবিদ রুহুল কুদ্দুস বলেন, সকাল থেকেই দেশের বিভিন্ন স্থানে বৃষ্টি হচ্ছে। এই প্রবণতা আরও কয়েক দিন অব্যাহত থাকবে।

এই বৃষ্টির মধ্যে ভাপসা গরমের কারণ হিসেবে রুহুল কুদ্দুস বলেন, বাতাসে আর্দ্রতার পরিমাণ বেশি থাকায় গরম কমছে না। তবে আরও বৃষ্টি হলে গরম কমে স্বস্তিকর অবস্থার সৃষ্টি হবে।

আবহার পূর্বাভাস অনুযায়ী, ঢাকা, চট্টগ্রাম, খুলনা, বরিশাল, রাজশাহী, রংপুর, ময়মনসিংহ ও সিলেট বিভাগের অনেক জায়গায় অস্থায়ী দমকা ও ঝড়ো হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি অথবা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। সেই সঙ্গে দেশের কোথাও কোথাও মাঝারি ধরনের ভারী থেকে ভারী বর্ষণ হতে পারে। সারা দেশে দিনের তাপমাত্রা ২ থেকে ৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস কমতে পারে।