মেইন ম্যেনু

কেমন হবে ইন্টারভিউ অ্যাটিচিউড?

ইন্টারভিউ এর দিনটি কিন্তু খুবই স্পেশাল। একেবারে যেন ভাগ্য নির্ধারণের দিন। আর যে কোন দিন যেমন তেমন, কিন্তু ইন্টারভিউ এর দিন থাকা চাই ফিটফাট। পোশাকে শুধু নয়, প্রকাশভঙ্গিতে থাকা চাই স্মার্টনেস। ব্যক্তত্বে প্রকাশ পাওয়া চাই আত্মবিশ্বাস। তবেই যেন আসবে সফলতা। হ্যা, ইন্টারভিউ বোর্ডে যোগ্যতার সাথে সাথে এই অ্যাটিচিউড প্রকাশ করাও বিশেষ জরুরি। জেনে নিই আরও বিস্তারিত-

এক্সট্রোভার্ট অ্যাটিচিউড
ইন্টারভিউ বোর্ডে এক্সট্রোভার্ট ব্যক্তিত্বের মানুষেরা বেশী নজর কাড়ে। কারণ আপনি যদি ইন্ট্রোভার্ট হন তা থেকে মনে হতে পারে আপনি লাজুক, সহকর্মীর সাথে মানিয়ে চলতে আপনার সমস্যা হবে, ক্লায়েন্টের সাথে ডিলিংস এও পিছিয়ে পড়বেন আপনি। ইন্টারভিউয়াররা সবসময় এমন একজন মানুষকে তাদের কোম্পানির জন্য নির্বাচিত করতে চান যিনি দায়িত্ব সামলানোর জন্য শুধু প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষায় যোগ্য হবেন না, একই সাথে তিনি হবেন এক্সট্রোভার্ট।

স্মার্ট অ্যাটিচিউড
স্মার্ট তো হতেই হবে। এর কোন বিকল্প নেই। আপনি যে অঞ্চলের মানুষই হন না কেন আপনার উচ্চারণ হতে হবে শুদ্ধ বাংলা। ইন্টারভিউ বোর্ডে অশুদ্ধ উচ্চারণ খুব বাজে ইম্প্রেশন তৈরি করে। আপনাকে পোশাকেও স্মার্ট হতে হবে। চুল আঁচড়ানো থেকে শুরু করে পায়ের জুতা পর্যন্ত ঝকঝকে হওয়া চাই। চোখে মুখে থাকা চাই বুদ্ধির ছাপ।

সিরিয়াস অ্যাটিচিউড
স্মার্ট হবেন, সাথে হবেন ক্লাসি। আপনি এই ইন্টারভিউতে নির্বাচিত হওয়ার মাধ্যমে চাকরিজীবনে প্রবেশ করতে যাচ্ছেন। আপনি যে আপনার ক্যারিয়ারের ব্যাপারে সিরিয়াস সেটা আপনার আচরণে প্রকাশ পাওয়া প্রয়োজন। চাকরিটা আপনার দরকার শুধু নয়, আপনার মাঝে আছে প্রফেশনের প্রতি নিষ্ঠা এবং প্রতিষ্ঠানের প্রতি শ্রদ্ধা, এই অ্যাটিচিউড নিঃসন্দেহে মুগ্ধ করবে বোর্ডের সবাইকে।

ম্যানেজেবল অ্যাটিচিউড
ইন্টারভিউ বোর্ডে অনেক বিব্রতকর প্রশ্ন করা হয়। আপনার দায়িত্ব হল বিব্রত না হয়ে কৌশলে উত্তর দেওয়া। এই প্রশ্নগুলো করাই হয় যাতে পরীক্ষা করা যায় আপনি অপ্রত্যাশিত পরিস্থিতি কতটা ম্যানেজ করতে পারেন। কারণ চাকরি জীবনে আপনাকে অনেক কঠিন পরিস্থিতি সামাল দিতে হবে। তাই ইন্টারভিউ বোর্ডেই প্রমাণ করে দিন আপনার সেই ক্ষমতা আছে। ধরে রাখুন আত্মবিশ্বাস।

ওবিডিয়েন্ট অ্যাটিচিউড
আত্মবিশ্বাসী হবেন, কিন্তু অনুগতও হতে হবে। আপনার কোম্পানি নিশ্চয়ই ঔদ্ধত্য পছন্দ করবে না আপনার মাঝে। তাই প্রতিটি পদক্ষেপে আনুগত্য প্রকাশ করুন। ইন্টারভিউ কক্ষে প্রবেশের সময় অনুমতি নিয়ে প্রবেশ করুন। বসার আগে অনুমতি নিন। প্রতিটি প্রশ্নের উত্তর দেবার সময় বিনয়ের সাথে উত্তর দিন। ধন্যবাদ দিন। কোম্পানির প্রশংসা করুন। এই কোম্পানির সাথে কাজ করতে পারলে আপনি খুশী হবেন সেটা প্রকাশ করুন। চাকরি আপনার নিশ্চিত।