মেইন ম্যেনু

কোন আট বৈশিষ্ট্যে প্রথম দেখাতেই প্রেমে পড়ে মেয়েরা?

প্রেমে পড়া মানুষের সহজাত প্রবণতা। আর প্রথম দর্শনে প্রেমের তো তুলনাই চলে না। মহিলারা প্রথম দর্শনে সচরাচর কোনও পুরুষের প্রেমে পড়েন না। মূলত পুরুষদের বিশেষ কিছু বৈশিষ্ট্য এবং আচরণের কারণে মেয়েরা প্রথম দেখাতেই তাদের প্রেমে পড়ে যান। তবে, পুরুষদের কিছু আকর্ষণীয় বৈশিষ্ট্যের জেরে প্রথম দেখাতেই মেয়েরা প্রেমে পড়ে যায়!

১. পোশাক
প্রথম দর্শনে ভালো না লাগার অর্থ এই নয় যে, শেষ দর্শনে কোন কাজ হবে না। তবে যাই বলুন না কেন, একজন পুরুষের পোশাক-পরিচ্ছদ যেকোন নারীকে মুহূর্তে ঘায়েল করতে পারে। স্মার্ট পোশাক রুচিশীল পুরুষের পরিচয় তুলে ধরে। আর প্রথম দর্শনেই এমন পুরুষের প্রেমে কে না পড়তে চান।

২. এলোমেলো সজ্জা
পুরুষদের অদ্ভুত এবং এলোমেলো স্টাইলের দারুণ ভক্ত মেয়েরা। তাই পরিপাটি নয় এবং রুক্ষ স্টাইলের ছেলেদের প্রেমে প্রথম দর্শনেই পড়ে যায় মেয়েরা।

৩. সৌজন্যবোধ
আধুনিক ছেলেদের মাঝে নাকি সৌজন্যবোধ নেই। কিন্তু এই গুণে যে কেউ মুগ্ধ থাকবে। তাই সৌজন্যবোধসম্পন্ন ছেলেদের প্রেমে পড়ে মেয়েরা।

৪. মহিলাদের প্রতি শ্রদ্ধাবোধ
প্রত্যেকের আত্মসম্মানবোধ রয়েছে। আর এর প্রতি প্রত্যেকের শ্রদ্ধাশীল থাকা ভদ্রতা ও সভ্যতার নামান্তর। মেয়েরা এমন পুরুষকে পছন্দ করেন, যার মহিলাদের প্রতি শ্রদ্ধাবোধ রয়েছে।

৫. আলাপী
আলাপচারিতা এমন এক বিষয়, যার মাধ্যমে যেকোন মানুষের মনজয় করা সম্ভব। পুরুষের আলাপচারিতায় মুগ্ধ হয়ে মেয়েরা নিমিষেই প্রেমে পড়ে যায়।

৬. শৌখিন
এক্ষেত্রে শৌখিনতা বিলাসিতা নয়। পুরুষের দারুণ কিছু শখ নারীদের হৃদয় হরণ করতে পারে। তাই শখের মাধ্যমে রুচির জানান দেওয়া প্রত্যেক পুরুষের অন্যতম বৈশিষ্ট্য।

৭. দেহের ভাষা
শরীরী ভাষার মাধ্যমে নিজেকে মেলে ধরতে পারেন যেকোন মানুষ। কারও অঙ্গভঙ্গির কারণে তাকে ভালো লেগে যাবে আপনার। তাই একটি মেয়ের কাছে পুরুষে দেহের ভাষা বেশ গুরুত্ব রাখে।

৮. মিল
প্রত্যেক মানুষ চান, তার মনের মানুষের সঙ্গে তার মন-মানসিকতা ও রুচিবোধের কিছু মিল থাকবে। বহু মেয়ে প্রথম দর্শনেই প্রেমে পড়েন এসবের সামান্য মিলের কারণে। আর এর মাধ্যমেই গড়ে ওঠে দু’জনের রসায়ন।



(পরের সংবাদ) »