মেইন ম্যেনু

কোন ডিম বেশি স্বাস্থ্যকর সাদা নাকি বাদামী ?

বাজারে বাদামি কিংবা সাদা- উভয় ধরনের ডিমই পাওয়া যায়। কিন্তু উভয়ের মাঝে কি পুষ্টিগুণের পার্থক্য রয়েছে? এ প্রশ্নের জবাবে বিশেষজ্ঞরা বলছেন ডিম সাদা কিংবা বাদামি যাই হোক না কেন, উভয়ের পুষ্টিগুণে বড় কোনো পার্থক্য নেই। এখন প্রশ্ন আসে তাহলে দামে কেন পার্থক্য রয়েছে? এক প্রতিবেদনে বিষয়টি জানিয়েছে বিজনেস ইনসাইডার।

গবেষকরা বলছেন, বাদামি ডিমে রয়েছে ওমেগা থ্রি ফ্যাটি অ্যাসিড। তবে একে খুব একটা বড় পার্থক্য হিসেবে মানছেন না তারা।

এ বিষয়ে যুক্তরাষ্ট্রের কর্নেল ইউনিভার্সিটির প্রাণীবিজ্ঞানের ভিজিটিং ফেলো ট্র বুই বলেন, ‘পুষ্টিগত দিক বিবেচনা করলে উভয়ের মাঝে পার্থক্য নেই…. বাদামি ডিমে রয়েছে বেশি ওমেগা থ্রি ফ্যাটি অ্যাসিড। তবে এ পার্থক্য অতি সামান্য।’

তাহলে ডিমের রঙে পার্থক্য কেন হয়? এ প্রসঙ্গে গবেষকরা বলেন, ডিমের রঙের পার্থক্য হয় জিনের কারণে। সাদা পালকের মুরগি সাদা ডিম দেয়। অন্যদিকে বাদামি বা গাঢ় রঙের পালকবিশিষ্ট মুরগি বাদামি ডিম দেয়।

বাদামি ডিমের দাম বেশি হয় কেন? এ প্রশ্নের উত্তর খুঁজতে গিয়ে জানা যায়, বাদামি ডিমের পেছনে খরচ বেশি হয়। তবে তার মানে এটা নয় যে, এগুলো বেশি স্বাস্থ্যকর। মূলত বাদামি ডিম পারে যে প্রজাতির মুরগি, সেগুলো সাদা মুরগির তুলনায় বেশি খাবার খায়। আর এ কারণেই বাদামি ডিম উৎপাদনে বেশি খরচ পড়ে। তবে বাদামি ডিমের স্বাদ সাদা ডিমের তুলনায় ভিন্ন।