মেইন ম্যেনু

কোন ব্লাড গ্রুপের জন্য কোন খাবার?

অসুখ-বিসুখ বলে কয়ে আসে না। কিন্তু কিছু নিয়ম মেনে চললে ছোটখাটো অসুস্থতা এড়ানো সম্ভব। মনে রাখতে হবে, বিন্দু থেকে সিন্ধু। তাই ছোট অসুখগুলো নিয়ন্ত্রণ করতে পারলে বড় অসুখ এড়িয়ে যাওয়া সম্ভব।

বিজ্ঞানীরা গবেষণায় দেখেছেন, কিছু অসুখ মানুষের ব্লাড গ্রুপের সঙ্গে সম্পর্কিত। আবার খাদ্যাভ্যাস দ্বারা মানুষের রোগ প্রভাবিত হয়। অর্থাৎ একেক ব্লাড গ্রুপধারী মানুষের খাদ্যাভ্যাসের ওপর নির্ভর করে তার রোগ নিয়ন্ত্রিত হয়। মানবদেহে একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হচ্ছে রক্ত। মানবদেহের প্রায় সকল শারীরবৃত্তীয় কর্মকাণ্ডের সঙ্গে রক্ত জড়িত। রক্তের মাধ্যমে অক্সিজেন ও কার্বন ডাই অক্সাইড পরিবাহিত হয়, হরমোন বাহিত হয়, এমনকি ফ্যাট কণাও বাহিত হয়। এ ছাড়া বিভিন্ন রোগ জীবাণু রক্তের মাধ্যমে বাহিত হয়। ইত্যাদি কারণে বলা যায় আমাদের শারীরিক সুস্থতা প্রায় পুরোপুরি নির্ভর করে রক্তের ওপর।

গবেষনায় দেখা গেছে কিছু মানুষের রক্তের লোহিত রক্ত কণিকা রক্তকোষের প্লাজমামেমব্রেনে এক বিশেষ ধরনের অ্যান্টিজেন বিদ্যমান। আবার কিছু মানুষের দেহে সেই অ্যান্টিজেন অনুপস্থিত। এই অ্যান্টিজেনের উপস্থিতি ও অনুপস্থিতির ওপর ভিত্তি করে পরবর্তী সময়ে শারীরতত্ত্ববিদ ল্যান্ড স্টেইনার মানুষের ব্লাড গ্রুপ নির্ধারণ করেন। ব্লাড গ্রুপ A, B, AB এবং O। আর রক্তের লোহিত রক্ত কণিকার প্লাজমামেমব্রেনে আরেকটি বিশেষ ধরনের অ্যান্টিজেনের উপস্থিতি ও অনুপস্থিতির ওপর ভিত্তি করে নির্ধারণ করা হয় ব্লাড গ্রুপের পজেটিভ এবং নেগেটিভ বিষয়। এই অ্যান্টিজেনের নাম আরএইচ ফ্যাক্টর।

O ব্লাডগ্রুপ: এই ব্লাড গ্রুপকে বলা হয় ‘পিকি ব্লাড গ্রুপ’। এই ব্লাড গ্রুপধারী মানুষের পেটের অসুখ হয়ে থাকে প্রায়ই। সেজন্য তাদের কার্বোহাইড্রেট জাতীয় খাবার যেমন : ডাল, বাদাম, রুটি, আলু, তেলযুক্ত খাবার, শিম, বরবটি, মটরশুঁটি ইত্যাদি বর্জন করা উচিৎ। তাদের জন্য উপযুক্ত খাদ্য তালিকা হচ্ছে ১. গরুর মাংস ২. মুরগির মাংস ৩. মাছ ৪. শাক সবজি ৫. ফল।

A ব্লাডগ্রুপ: এই ব্লাড গ্রুপকে বলা হয় সেনসেটিভ ব্লাড গ্রুপ। এই ব্লাড গ্রুপধারী মানুষের হার্টের অসুখে আক্রান্ত হবার আশঙ্কা বেশি। তাই গরুর মাংস, খাসির মাংস ও মুরগির মাংস পারতপক্ষে তাদের এড়িয়ে চলা উচিৎ। তাদের জন্য উপযুক্ত খাদ্যতালিকা হচ্ছে ১. শাক সবজি ২. ফল ৩. ডাল ৪. সামুদ্রিক মাছ।

AB ব্লাডগ্রুপ: এই ব্লাড গ্রুপকে বলা হয় ‘সামহোয়্যার ইন দ্য মিডল ব্লাড গ্রুপ’। এই ব্লাড গ্রুপধারী মানুষের গরুর মাংস, অ্যালকোহল, চা, কফি এবং লেবু এড়িয়ে চলা উচিৎ। তাদের জন্য উপযুক্ত খাদ্য তালিকা হচ্ছে ১. শাক সবজি ২. সামুদ্রিক মাছ ৩. মুরগির মাংস ৪. ফল।

B ব্লাডগ্রুপ: এই ব্লাড গ্রুপকে বলা হয় ‘হার্ডি ব্লাড গ্রুপ’। সবগুলো ব্লাড গ্রুপের মধ্যে এদের হজম শক্তি সবচেয়ে ভালো। তারা যে কোন ধরনের খাবার খেয়ে হজম করতে সক্ষম। তারপরও এই ব্লাড গ্রুপধারীদের টমেটো, ভূট্টা ও বাদাম বর্জন করা উচিৎ। এছাড়া সব ধরনের খাবার তাদের জন্য উপযুক্ত।

সুস্থ থাকার জন্য সচেতনতা জরুরি। একটু নিয়ম মেনে চললে অনেকখানি ভালো থাকা সম্ভব। ছোট অসুখ নিয়ন্ত্রণ করে বড় অসুখগুলোকে প্রতিরোধ করতে পারলে জীবন হয়ে উঠতে পারে অনেক সুন্দর।