মেইন ম্যেনু

কোরীয় যৌনদাসীদের ক্ষতিপূরণ দেবে জাপান

দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময় যেসব কোরীয় যৌনদাসী জাপানি সেনা কর্মকর্তা ও জওয়ানদের মনোরঞ্জনে বাধ্য হয়েছিলেন, তাদের ক্ষতিপূরণ দেবে জাপান। এ জন্য দক্ষিণ কোরিয়াকে প্রায় সাড়ে আট মিলিয়ন মার্কিন ডলার দেয়া হবে।

আজ সোমবার সিউলে অনুষ্ঠিত দুই দেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর বৈঠকে এই ঐতিহাসিক সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। খবর বিবিসি অনলাইনের।

দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর থেকে জাপানের সঙ্গে দক্ষিণ কোরিয়ার যে দুটি মূল বৈরিতা চলে আসছে তার মধ্যে এটি অন্যতম। অপরটি হলো নানজিং গণহত্যা।

ধারণা করা হয়, দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময় প্রায় দুই লাখ নারীকে যৌনদাসত্বে বাধ্য করা হয়েছিল, যাদের একটি বড় অংশ ছিলেন কোরিয়ার অধিবাসী। ওই সময় ক্ষতিগ্রস্ত নারীদের মধ্যে মাত্র ৪৬ জন এখন বেঁচে আছেন।

দক্ষিণ কোরিয়া বরাবরই এ জন্য জাপানকে ক্ষমাপ্রার্থনা এবং ক্ষতিগ্রস্ত নারীদের ক্ষতিপূরণ দেয়ার দাবি জানিয়ে আসছে। এসব দাবিতে সরকারের সঙ্গে যুক্ত হয়েছে দেশটির নারীবাদী সংগঠনগুলোও।

আর এই দীর্ঘ দ্বন্দ্বের সমাপ্তি ঘটাতে দুই দেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রীরা আজ সিউলে বৈঠকে বসেছিলেন। ধারণা করা হচ্ছিল, এ বৈঠক থেকে ভালো কোনো ঘোষণা আসতে পারে।

কারণ, জাপান আগেই জানিয়েছিল, কোরীয় যৌনদাসীদের ক্ষতিপূরণ দিতে তারা একটি সরকারি বরাদ্দের কথা ভাবছে।