মেইন ম্যেনু

‘ক্রিকেটে পাকিস্তানকে সমর্থন করা যাবে না’

“ক্রিকেট খেলায় পাকিস্তানকে সমর্থন করা যাবে না। পাকিস্তানের বিরুদ্ধে যারা খেলবে বাঙালি হিসেবে তাদেরকেই সমর্থন করতে হবে।” শুক্রবার রাজধানীর উত্তরায় বিসিক মিলনায়তনে সানফ্লাওয়ার স্কুলের বার্ষিক চিত্র প্রদর্শনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে নৌ পরিবহনমন্ত্রী শাজাহান খান এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, কোনো বাঙালি পাকিস্তানকে সমর্থন করতে পারেন না। পাকিস্তান আমাদের খেলার মাঠেও শত্রু। অনেকেই পাকিস্তানের পতাকা গালে এঁকে খেলা দেখতে যান, পাকিস্তান খেলায় জিতলে অনেকেই হাত তালি দিয়ে বাহবা জানান। এটি রীতিমত অবাক করে! অবাক করে পাকিস্তান কি করে বন্ধু হতে পারে!

মন্ত্রী পাকিস্তানের কড়া সমালোচনা করে আরো বলেন, দেশটির সাবেক ক্রিকেটার ইমরান খান বাংলাদেশের শত্রু। তিনি যুদ্ধাপরাধীদের ফাঁসি ঠেকাতে প্রধানমন্ত্রীকে (শেখ হাসিনা) ফোন করেছিলেন। মুক্তিযুদ্ধের ঘাতক জেনারেল নিয়াজির ভাতিজা ইমরান খান। সে কখনও বাংলাদেশের বন্ধু হতে পারেন না।

পাকিস্তান বাংলাদেশের বিরুদ্ধে এখনও ষড়যন্ত্র করে যাচ্ছে। আর এই ষড়যন্ত্রে এদেশেরই কিছু লোক হাত মিলিয়েছে। আমাদের এই ষড়যন্ত্রের বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে বলেও জানান তিনি।

পাকিস্তানের কাছে ৩৫ হাজার কোটি টাকা পাওনা রয়েছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, `৭০-এর ঘুর্ণিঝড়ের সময় বাংলাদেশের জন্য দুইশ বিলিয়ন বৈদেশিক সাহায্য এসেছিল। সে টাকাও পাকিস্তানে আটকা রয়েছে। এবার সুদে-আসলে পাওনা আদায়ের সময় এসেছে।

জামায়াত-বিএনপির পাপের কারণেই বাংলাদেশে উন্নয়ন হয়নি দাবি করে শাজাহান খান বলেন, বঙ্গবন্ধুর কন্যা ক্ষমতায় এসে যুদ্ধাপরাধ এবং ১৫ অাগস্টের খুনিদের বিচার করে পাপ মোচন করছেন। এখন বাংলাদেশ উন্নয়নের রোল মডেল। বিশ্ব নেতারা বাংলাদেশের উন্নয়ন দেখে অবাক হচ্ছেন।

মন্ত্রী তার বক্তব্যে শিশুদের বাঙালি সংস্কৃতি চর্চা এবং ধারণ করার আহ্বান জানান। পরে স্কুলের শিক্ষার্থীদের হাতে ক্রেস্ট তুলে দেন তিনি।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিসিক চেয়ারম্যান হযরত অালী।