মেইন ম্যেনু

ক্রিকেট ইতিহাসে বিরল রেকর্ড গড়লেন সাকিব

ক্রিকেটের ইতিহাস ১৩৯ বছরের দীর্ঘ। ১৮৭৭ সালে মেলবোর্নে অস্ট্রেলিয়া আর ইংল্যান্ডের মধ্য দিয়ে শুরু হয়েছিল ইতিহাসে প্রাতিষ্ঠানিক ক্রিকেটের পদযাত্রা। সেই থেকে হাঁটি হাঁটি পা পা করে ১৩৯টি বছর পার করে ফেললো ক্রিকেট। এরই মধ্যে ১৯৭১ সালে সেই মেলবোর্নেই শুরু হলো ওয়ানডে ক্রিকেটের শুরু। এরপর ২০০৫ সালে শুরু হলো ক্রিকেটের সবচেয়ে সংক্ষিপ্ততম সংস্করণ টি-টোয়েন্টি ক্রিকেট।

তিন ফরম্যাট মিলিয়ে ক্রিকেটারদের পরিসংখ্যান হিসেব ধরলে সেটার শুরু হবে ২০০৫ সাল থেকেই। এরপর থেকেই আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে এখনও পর্যন্ত তিন ফরম্যাট মিলিয়ে কোনো দেশের কোনো বোলারই শীর্ষে উঠতে পারেনি। এই প্রথম বাংলাদেশের এক বোলার এই বিরল কৃতিত্বটি অর্জণ করে নিলো।

সাকিব আল হাসানই এখন একমাত্র বোলার, যিনি টেস্ট, ওয়ানডে এবং টি-টোয়েন্টি মিলিয়ে তিন ফরম্যাটেই শীর্ষ উইকেট শিকারি। আজ মিরপুরে আফগানিস্তানের বিপক্ষে প্রথম ওয়ানডেতে দলটির ওপেনার শাবির নুরিকে এলবিডব্লিউর ফাঁদে ফেলে ছুঁয়ে ফেলেন ওয়ানডেতে বাংলাদেশের হয়ে সর্বোচ্চ উইকেট শিকারি আবদুর রাজ্জাককে।

২০৭টি উইকেট নিয়ে এতদিন ওয়ানডেতে বাংলাদেশের হয়ে সর্বোচ্চ উইকেটশিকারী ছিলেন আবদুর রাজ্জাক। শাবির নুরিকে আউট করে সাকিবেরও উইকেট হয়ে গেলো ২০৭টি। টেস্টে সাকিবের উইকেট সংখ্যা ১৪৭টি। এই ফরম্যাটে ১০০ উইকেট নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে রয়েছেন মোহাম্মদ রফিক। টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে বাংলাদেশের হয়ে সর্বোচ্চ উইকেট শিকারীও সাকিব আল হাসান। তার ঝুলিতে সর্বোচ্চ ৬৫ উইকেট। ৪৪ উইকেট নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে রয়েছেন আবদুর রাজ্জাক।