মেইন ম্যেনু

ক্রিকেট মাঠে আর নয়, এবার মন্ত্রীপদে শপথ নিলেন সিধু

পাঞ্জাবে মুখ্যমন্ত্রীপদে শপথ নিলেন ক্যাপ্টেন অমরিন্দর সিং। এছাড়াও বৃহস্পতিবার শপথ নিলেন আরও ৮ মন্ত্রী। এদের মধ্যে রয়েছেন নভোজৎ সিং সিধুও। পাঞ্জাবে কংগ্রেসের জয়ের পর সিধুকে উপমুখ্যমন্ত্রী পদে বসানোর আলোচনা ঘুরপাক খাচ্ছে রাজনীতির অন্দরে। যদিও কংগ্রেসের মধ্যেই একাধিক নেতা বিরোধিতা শুরু করেছেন।

এদিন ঠিক ১০টা ১৬ মিনিটে শপথ গ্রহণ করেন অমরিন্দর সিং। কারণ, জ্যোতিষির মতে ওটাই ছিল তার কাছে শুভ সময়। পাতিয়ালার মহারাজার পুত্র ক্যাপ্টেন অমরিন্দরের জনপ্রিয়তা পাঞ্জাবে

প্রশ্নাতীত। রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞদের মতে, পাঞ্জাবে কংগ্রেসের জয়ের অন্যতম কারণই হল অমরিন্দরের জনপ্রিয়তা।

এদিন মন্ত্রীপদে শপথ নেন ভারতের সাবেক ক্রিকেটার নভোজৎ সিং সিধু, মনপ্রীত বাদল, ব্রাহম মহিন্দ্র, চরণজিত্‍‌ চান্নি, রানা গুরজিত্‍, ত্রিপত বাজওয়া ও রেজিয়া সুলতানা। শপথগ্রহণ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন কংগ্রেস সহসভাপতি রাহুল গান্ধী ও ভারতের সাবেক প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিং।

শপথগ্রহণ শেষে অমরিন্দর বলেন, ‘পাঞ্জাবে এই মুহূর্তে সবচেয়ে বড় সমস্যা ড্রাগের নেশা। মনোবিদরা চেষ্টা করছেন। তবে সরকারি স্বাস্থ্য ক্ষেত্রে আরও নজর দিতে হবে। এছাড়া শিক্ষার উন্নয়নও আমাদের নজরে থাকবে।’

এই নিয়ে দ্বিতীয়বার পঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী হতে চলেছেন ক্যাপ্টেন অমরিন্দর। ১১৭ সদস্যের বিধানসভায় দলকে ৭৭টি আসন দিয়েছেন বর্ষীয়াণ এই নেতা। অমরিন্দর জানিয়েছেন, রাজ্যের অর্থনীতিকে সঠিক পথে চালিত করাই তার প্রাথমিক লক্ষ্য। এ জন্য অপ্রচলিত পন্থা নিতেও দ্বিধা করবেন না তিনি। তার অভিযোগ, ১০ বছরের অকালি-বিজেপি শাসনকালে পঞ্জাবের অর্থনীতি চূড়ান্ত ধাক্কা খেয়েছে।