মেইন ম্যেনু

“ক্ষমতা হারাবার ভয় নেই, জীবন হারাবারও ভয় নেই”

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ‘আমার ক্ষমতা হারাবার ভয় নেই, জীবন হারাবারও ভয় নেই।’

আজ বুধবার সকালে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে অসুস্থ, অসচ্ছল ও দুর্ঘটনাজনিত আহত এবং নিহত সাংবাদিক পরিবারের সদস্যদের মধ্যে আর্থিক সহায়তার চেক প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী এ কথা বলেন।

সরকারপ্রধান বলেন, নানা ষড়যন্ত্র থাকবে, এর মধ্যেই তিনি এগিয়ে চলেছেন। দেশের স্বার্থকে জলাঞ্জলি দিয়ে ক্ষমতায় থাকতে চান না তিনি।

আজ ১৯৬ সংবাদকর্মীর হাতে বাংলাদেশ সাংবাদিক কল্যাণ ট্রাস্টের এক কোটি ৪০ লাখ টাকা অনুদান তুলে দেন প্রধানমন্ত্রী। তাঁর দিক-নির্দেশনায় গড়ে ওঠা এ ট্রাস্টের মাধ্যমে এবারই প্রথম সহায়তা দেওয়া হচ্ছে।

প্রধানমন্ত্রী ট্রাস্টের অর্থ বৃদ্ধিতে বিত্তবান গণমাধ্যম মালিকসহ সবাইকে এগিয়ে আসার আহ্বান জানান।

বঙ্গবন্ধু কলকাতা থেকে প্রকাশিত দৈনিক ইত্তেহাদের তৎকালীন পূর্ববঙ্গের প্রতিনিধি ছিলেন উল্লেখ করে শেখ হাসিনা বলেন, সেদিক থেকে তিনি নিজেও গণমাধ্যম পরিবারের সদস্য। বিশ্ব ও বাংলাদেশের গণমাধ্যমের তুলনা করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, সরকার গণমাধ্যমের কাছ থেকে গঠনমূলক সমালোচনা প্রত্যাশা করে।

দেশ-বিদেশের নানা চাপ থাকলেও এর মধ্যেই যুদ্ধাপরাধের বিচার চলবে বলে জানান শেখ হাসিনা।

সংবাদকর্মীদের এ অনুষ্ঠানে বিভিন্ন সময়ে সাংবাদিক হত্যার বিচার শেষ করা হবে বলে আশ্বস্ত করেন প্রধানমন্ত্রী। তিনি বলেন, তিনি কাউকে প্রশ্রয় দিতে আসেননি।

এ সময় বিএনপির রাজনীতির কড়া সমালোচনা করেন প্রধানমন্ত্রী। তিনি জানতে চান, নতুন কমিটিতে যুদ্ধাপরাধী, হত্যা-খুনের সঙ্গে জড়িতদের স্থান দেওয়া বিএনপি কিসে বিশ্বাস করে?